গুডবাই সাইপ্রে (চাকমা ভাষার ছোট গল্প)

লেখক– নিসা চাকমা                                                                     

বাংলানুবাদ– (চম্পক নগর নামে এক রাজ্যে ছিল। সে রাজ্যের বৃদ্ধ রাজা ছিলেন সাংবুদ্দর। তার দুই ছেলে। বড় ছেলের নাম বিজয় গিরি ও ছোট ছেলের নাম সমর গিরি। একদিন বৃদ্ধ রাজা শুনলেন সাইপ্রে নামের একটা স্বর্গের মত সুন্দর রাজ্যে রয়েছে। তার ইচ্ছে জাগলো ওই রাজ্যের জয় করতে। তিনি তার দুই ছেলেকে ডেকে তার মনে ইচ্ছা পূরনের জন্য ওই রাজ্যের জয় করতে বললেন। দুই ছেলে বৃদ্ধ বাবাকে কথা দিলেন তারা সাইপ্রে রাজ্যে অবশ্যই জয় করবেন। শেষ পর্ষন্ত ডাক পড়ল চম্পক নগরের সবচেয়ে রণবীর শিতি ধনপাতার গ্রামের রাধামনের। বিজয় গিরি রাধানমকে ডেকে সাইপ্রে রাজ্যের কথা বললেন এবং রাধামনকে সেনাপতি উপাধি ভূষিত করে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য নির্দেশ দিলেন। এ কথা রাধামন তার প্রেমিকা ধনপুদিকে যুদ্ধের কথা ও সেনাপতির উপাধি পাওয়ার কথা জানালেন। কিন্তু ধনপুদি রাধামনকে যুদ্ধে না যেতে বারংবার বললেন এবং কান্দায় ভেঙ্গে পড়েন। শেষ রাধামন ধনপুদিকে কথা দিলেন সাইপ্রে রাজ্যে জয় করে আবার তার(ধনপুদি) কাছে ফিরে আসবেন। ধনপুদি রাধামনের জন্য বীরের পোশাক বানিয়ে দেয় যুদ্ধের জন্য। অবশেষে ধনপুদির তৈরীর বীরের পোশাক পড়ে রাধামন যুদ্ধে গেলেন। বিজয় গিরি ও রাধামন সাত হাজার সৈন্য-সামন্ত নিয়ে সাত দিন সাত রাত আর এক বিশাল সাগর পাড় হয়ে সাইপ্রে রাজ্যে পৌঁছালেন। তারা পৌঁছার সেখানকার সাইপ্রে রাজার সাথে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে যুদ্ধ করলেন। শেষ পর্ষন্ত বিজয় গিরি ও রাধামন সাইপ্রে রাজ্যে জয় নিশ্চিত করলেন।
এদিকে সাইপ্রে রাজ্যে বিজয়ের আনন্দ যেতে না যেতে চম্পক নগর থেকে সংবাদ আসলো চম্পক নগরের বৃদ্ধ রাজা সাংবুদ্দ মারা গেছেন এবং ছোট ছেলে সমর গিরি সিংহাসনে আরোহন করেছেন। বিজয়গিরির চম্পক নগর ফিরে যাওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্ষন্ত লজ্জায় তিনি চম্পক নগরে না গিয়ে সাইপ্রে রাজ্যে রাজা হিসেবে থেকে গেলেন। তবে এর মধ্যে বিজয় গিরি রাধামন ও তার সৈন্য-সামন্তকে ডেকে বললেন তোমরা যে যার ইচ্ছা চম্পক নগরে ফিরে যেতে পারবে। এতে সৈন্যরা বললো আপনি(বিজয়গিরি) এই সাইপ্রে রাজ্যে থাকলে আমরাও আপনার সাথে থাকবো। বিজয় গিরি ও সৈন্য সামন্ত সাইপ্রে রাজ্যেতে রয়ে গেলেন। কিন্তু রাধামন তার প্রিয়সী ধনপুদিকে প্রতিশ্র“তি দিয়েছিলেন সাইপ্রে রাজ্যে জয় করার পর তার কাছে ফিরে যাবেন। অবশেষে রাধামন ধনপুদির কাছে ফিরে গেলেন এবং সাইপ্রে রাজ্যের বিজয়ের কথা চম্পক নগরবাসীকে জানালেন। কিন্তু স্বর্গের সাইপ্রে রাজ্যে পিছনে পড়ে থাকলো।)

গুডবাই সাইপ্রে (চাকমা ভাষায়)

এত্তে এল’ চম্পকনগর নাঙে এক্কান রেজ্য। সে চম্পকনগর’ বেগ আদামানি ধনে-জনে এল’দে পেলাঙ পেলাঙ। চম্পকনগরত কন’ প্রজা ন’ এলাক রাদত। বেক্কুনে সুগে-শান্তিদে চাষবাস গরিনেই ঘর-গিরিত্তি গরিদাক। চম্পকনগর’ রাজা সাংবুদ্দর দিবে পুও -দাঙরবো বিজয়গিরি আ চিগোন্ন সমরগিরি। রূবে গুনে সানে সিক্কেয় আ রণ’ বিদ্যেত রাজপুত্র বিজয়গিরি আ সমরগিরি দুন’জনর নাঙ চিরকিত্ত্যা।

একদিন্যে চম্পকনগরর বুরো রাজা সাইপ্রে নাঙর এক্কান দোল রেজ্যর কধা শুনিল’। সে রেজ্যয়ান ভিলে এধক দোল বানা চেই থেদ’ পরানে কয়। সাইপ্রে রেজ্যর মাদিয়ানি নাহি এন বলি যিয়ান লাগেদে সাদ সিয়েন ফলে। রাজার আহ্ওজ অল’ তা রেজ্যয়ান আর’ এক্কা দাঙর গোরেবার। সমারে সাইপ্রে কুলানও জয় গরিবাত্যেই। হালিক রাজা বুড়ো অইয়্যা। রাজা তা দাঙর পুও বিজয়গিরিরে দাগিনেই কল’ “চম্পকনগরর সিমানা খুদি তমাত্তুন ঠিগ গোরি লনা দরকার। পুগে বরগাঙ পার, দগিনে সাইপ্রে, উত্তুরে চিন ধুঝি, পজিমে মেঘনা গাঙ সং রেজ্য গরানা উচিদ। পুত তুই চম্পকনগরর বেগত্তুন বেজ রণ’ ওস্তাদ সৈন্যবোরে সেনাপতি বানা।” বিজয়গিরি কল’ “বা,মুই ত’ মন’ আঝায়ান পুরেই দিম। মুই কয়েক দিনর ভিদিরে রেজ্য বিস্তারত লামঙর।” সিয়ান শুনি রাজা খুজি ওইনেই কল’ “ঠিগ আঘে পুত্রদেব। মুই তরে আশীর্বাদ গরঙ- চম্পকনগর’ রেজ্য দাঙর গরিনেই পিত্থিমী জঘা ত’ নাঙান যেন’ সিদি পরোক।”

ডাগ পরিল’ চম্পকনগরর সেন্যবাহিনীর বেগত্তুন বেজ রণ’বীর আ শিক্কিত অহ্ল ধনপাদা আদামর রাধামন। রাধামনেও গায়গদরে আ রণ’বিদ্যেত রাজপুত্র দাগিত্তুন কন’হিত্যা কম নয়। ডাগ পেনেই রাজপুত্র বিজয়গিরি সিধু রাধামনে আজির অল’। রাজপুত্র বিজয়গিরি কল’ “রাধামন, রণ’হলাত ত’ বিদ্যের কধা মুই শুন্যঙ। সাইপ্রে বিস্তার গরিবাত্যেই তরে মুই সেনাপতির দায়িত্ব দিলুং। তুই যুক্কুল অহ্।” আহ্ধ জুর গরিনেই রাধামনে রাজপুত্র বিজয়গিরিরে কল’ “অয় কত্তাবাবু।” রাজপুত্র বিজয়গিরি আহ্জিনেই কল’ “সালেন তুই সৈন্যউনরে থুব’ গর। আমি যেদক ঝাদি মাদি পারিয় সেধক ঝাদি রেজ্য বিস্তেরত লামিবঙ।”
রাধামনে খুঝিয়ে তা পরানবী ধনপুদিরে সাম্বাদত্তান কল’ ‘‘ম’ পরানর ধনপুদি ইচ্যে ম’ হুজির দিন’’। “আহ্ হিইয়্যা এধক হুজির দিন ?” পুঝর গরিল’ ধনপুদি। “মরে ইচ্যে রাজপুত্র বিজয়গিরি চম্পকনগরর সৈন্য চেলা বানেইনে কল’দে সাইপ্রে রেজ্য বিজয় গরিবাত্যেই মত্তুন দগিন কুলে যাত্রা গরা পরিব। সিদু নাহি ভারী অরাজক চলের, প্রজাগুনে অশান্তিয়ে ঘুম ন’ পাদন।” ‘‘তে তুই রাজপুত্ররে কি কলে ?’’ পুঝর গরিল ধনপুদি। ‘‘মুই রাজপুত্র বিজয়গিরিরে খুঝিয়ে কলুং ঠিগ আঘে কত্তাবাবু ।’’ রাধামন’ কধা শুনি ধনপুদির চিদে বারিল’। চিদে ফুদিল’, রণহলাত তা পরান রাধামনর আদিক্যে যুদি কিচ্যু অয় ? ধনপুদি তা মেন মেন কালা চুলভত্তি মাদাবো লারেই লারেই কল’দে “না না, তুই ইক্কিনে রাজপুত্র বিজয়গিরি সিধু যেনেই কগোই তুই রণ’হলাত যেই ন’ পারিবে।’’ রাধামনে শুনি আমক ওইনে ধনপুদিরে পুঝোর গরিল’ “কিত্যেই?” ধনপুদির চোগ’পানি ধেরধেচ্যে, রাধামন’রে কল’দে ‘‘মুই তর থেঙত পরঙ, তুই রণ’হলাত ন’ যেচ। ভগবানে ন’ দেগোক তর’ যুদি কিঝু অয় কেনে বাজি থেম ?’’ রাধামনে ধনপুদি কধা শুনিনেই বল হিজি হিজি মাদা বিজিনেই কল’ ‘‘না না, মুই সেদিক্কেন কাম গরি ন’ পারিম। মুই রাজপুত্র বিজয়গিরিরে কধা দোঙ। ম’ কধায়ান মুই ফিরে আনি ন’ পারিম।’’ এ কধায়ান কোইনেই অগ’মানে ঝাদুম ঝাদুম থেঙ’ হুচ ফেলেই রাধামনে ঘরত্তুন নিঘিলি গেল’।
সাইপ্রে রেজ্য জয় গরিবার উদিজে কমর দর’ গরি রাধামনে যাইযুক্কলত লামিল’। ইন্দি ধনপুদি রেদ নেই, দিন নেই বানা কানি কানি থায়। ধনপুদির গাওলিও গম নেই তা সমাজ্যে পূন্যবীলোই নিলঙবী রাধামনরে বুঝেবাত্যেই গেলাক। হালিক তারাও রাধামন’রে মানেই ন’ পারিনেই ফিরি এলাক। একদিন্যে রাধামনে কাম-করচ সারিনেই অহ্রান ওইনে রেদোত ভাত খা বোজিনে ধনপুদিরে কল’দে ‘‘আমি এযেত্তে কিল্ল্যে বাদে পয্যু সাইপ্রে রেজ্য উধিজে লদ দিবং। বেক যইযুক্কল গরানা থুম ওইয়্যা।’’ রাধামন কধা শুনিনেই ব’ নিজেচ ফেলেই ধনপুদি কল’ ‘‘সালেন মুই তরে এক্কান সাজঙ্যা গানসাকানি বুনি দিম। ম’ কোচপানার নিজেনী সাজঙ্যা গানসায়ান পিনিনেই তুই রণ’হলাত যেচ’’। রাধামনে আহ্জিনেই ধনপুদির চোগে চোগ রাগেনেই কল’দে “ঠিগ আঘে ম’ পরানর ধনপুদি। ত’ মন’ আঝায়ান মুই পুরে দিম।” বিন্যা পোত্যা উধিনেই ধনপুদি সাজঙ্যা গানসায়ান বাজেনে বেল্যে মাধান বুনানা থুম গোরি কাবি দিল’।

তা’পরের দিন্যে চম্পকনগর’ মানুষচুনে ঘুমত্তুন জাগি উধিলাক রণ’হলার ধুল বাজানাত। দম দমাদম দম… রণ’হলার ধুল বাজানাত গোদা চম্পকনগরান গিরগিরেই গিরগিরেই উধের। ধনপুদি বুনি দিয়্যা সাজঙ্যা গানসায়ান পিনি রাধামনে তা ঘরত্তুন নিঘিলিলো। যেবার কাদাল্যে ধনপুদির চোগ’ পানি পুঝি দিনেই কল’ ‘‘ন’ কানিচ ম’ পরানর ধনপুদি। চিদে ন’ গরিচ তুই। ত’রে মুই কধা দিলুঙ, মুই ত’ সিধু আর’ ফিরি এম। ইয়ান ম’ সাত জনমর কবাল ত’ সান্যেন উক্ক লোক্কি বো পেয়ঙ। গাওলী গম থেচ।” ধনপুদি রাধামনরে থেঙত সালাঙ গরিনেই বিদেয় দিল’। আহ্ঝার আহ্ঝার সৈন্য সামন্ত

লই রাজা বিজয়গিরি আ সেনাপতি রাধামনে চম্পক নগরর দগিনকুলর পধত যেদক্কানি রেজ্য পয্যে, সে বেগ রেজ্যয়ানি বিজয় গরিলাক। রাজপুত্র বিজয়গিরি আ রাধামন’ লঘে বেগ রাজাউন রণ’হলাত অধিলাক। রেজ্যত্তুন রেজ্য সারি মোন-মুরো, ছরা, ঝার জঙ্গল ফারি ফারি রাজপুত্র বিজয়গিরি সাইপ্রে রেজ্য উধিজে উজেই যার। পদ’ মায় কধ’ বিপদ-আপদ, কধ’ কি লাঘত পেয়ন তার নেই ঠিগ। দেবা কালা গজরনি-ঝিমিলেনি ন’ পারিল’ তারারে থামেই।
ইন্দি ধনপাদা আদামত ধনপুদি তা রাধামনত্যেই চিদে গত্যে গত্যে হেঙেদা ওই যার। ধনপুদি রাধামন’ চিদেয় কিচ্ছু খেই ন’ পারে, ন’ পারে ঘুম যেই।

একদিন্যে রাজপুত্র বিজয়গিরি তা সাত-সমু সৈন্যলোই স’ দিন স’ রেদে এক্কান বরগাঙ পার ওইনে সাইপ্রে রেজ্যত লুমিল’। সাইপ্রে রেজ্যয়ানর রূব দেগি রাজপুত্র বিজয়গিরি সেনাপতি রাধামন আ তারা সৈন্য-সামন্ত অলাক বেক্কুনে আমক। ইয়ান কি তারা সরগত লুম্মোনি নাহি ? তারার বিচ্যেচ ন’অর এম্মা দোল জাগা পিত্থিমীতও থেই পারে ! যিনদি চেদ’ সাদ চোঘত পরে বানা এ্যাল এ্যাল গাঝ বাঝ! দূরত গরি মুরোউন রিপ রিপ গরিনেই চোগত পরে। আদিক্কে গরি চেলে মনে অয়দে আগাজচানদোই মাদিয়েন একলাগার ওই যেইয়্যা। মুরো তুগনত উধিনেই আগাজচান ধোরি পারিব’দে সান লাগে।

সাইপ্রে রেজ্য রাজা লগে চম্পকনগর’ রাজপুত্র বিজয়গিরির বাজিল’ লারেই। সাপ্তা বিদি যাদে ন’ যাদে রাজপুত্র বিজয়গিরির সাহায্যে আ সেনাপতি রাধামন’ রণ’বিদ্যেত সাইপ্রে রেজ্যর রাজা রণ’হলাত অহ্ধিল। সবনর সাইপ্রে রেজ্যয়ান জয় গরিনেই হুঝির রেঙ তুলিলাক বেক্কুনে। রণ’হলার জিনিবের উৎসব গত্তে গত্তে চম্পকনগরত্তুন সাম্বাদ এক্কান লুমিলোগি। রাজপুত্র বিজয়গিরি চম্পকনগরত নেইদে পিযেন্দি বুড়ো রাজা সাংবুদ্দা মারা পয্যে আ চম্পকনগর’ সিংহাসনত বচ্যে বিজয়গিরির চিগোন ভেই সমরগিরি। মন’ দুগে লাজে রাজপুত্র বিজয়গিরি তা সৈন্য সামন্তউন’ উধিজে কল’ ‘‘মুই আর চম্পকনগরত ফিরি ন’ যেম। এ সাইপ্রে রেজ্যদোই মুই থেই যেম। তমার যার পরানে কয় তে সিধু ফিরি যেই পারিবে। মুই বাধা ন’ দিম।” সৈন্যউনে তেম্মাঙ গরিনেই বিজয়গিরিরে কলাক ‘‘আমিও আর চম্পকনগরত ফিরি ন’ যেবং। ইধুই আমি ত’ লগে থেবঙ। সাইপ্রে রেজ্যর রাজাই অভে তুই আমার।’’

ভালক্কন ধোরি রাধামন’রে মু চুদ’ গরি থাগ’দে দেগিনেই রাজা বিজয়গিরি পুঝোর গল্ল্য ‘‘সেনাপতি রাধামন, তর কি মন’ আওজ ? তুই কি ইধু আমা লগে থেবার চাস নাহি চম্পকনগরত ফিরি যেবার চাস ? ’’ রাধামনে লারে গরি মাধাব’ তুলিনেই রাজা বিজয়গিরিরে কল’ ‘‘রাজাবাবু, মুই চম্পকনগরত ফিরি যেম। ম’ মোক ধনপুদিরে মুই কধা দি এচ্চ্যঙ, তা সিধু মুই ফিরি যেম’।’’ রাজা বিজয়গিরি কল’ ‘‘ঠিগ আঘে রাধামন, তুই চম্পকনগরত ত’ মোগ’ সিধু ফিরি যা। সিধু যেনেই তুই আমা রণ’হলার বিজয় কধা বেক্কুনরে শুনেচ্চই। সুগে থেও তুমি বেক্কুনে।’’

বেলান ডুবেলোই। রাধামন’ মুওত আহ্ঝি, চম্পকনগরত ফিরি যেইনে পরানর ধনপুদিরে তে কধকদিন পর দেগিব’ সে খুঝিয়ে তা চোককুন ঝিমিলাদন। সাজঙ্যা গানসাকানিয়ান দর’মর’ গরি গুজ দি রাধামনে ঝাদুম ঝাদুম থেঙ’ হুচ ফেলেই চম্পকনগর’ উধিজে লদ দিল’। পিচ্চেন্দি পরি থেল’ স্বর্গ রেজ্য সাইপ্রে।

—লেখকের পরিচিতি ঃ নিসা চাকমা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

Print Friendly