বরকলে বিরতিহীন লঞ্চ থেকে ৪০ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার

বরকল প্রতিনিধি,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

barkal lounch pic-01রাঙামাটির বরকল উপজেলায় ছোটহরিণাগামী বিরতিহীন লঞ্চ থেকে বুধবার দুই কাটন দেশীয় চোলাই মদ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসব মদ সীমান্তে পাচার করা হচ্ছে বলে পুলিশের ধারনা।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বরকল থানা পুলিশ বুধবার দুপুরে রাঙামাটি থেকে ছোটহরিণা গামী বিরতিহীন লঞ্চ তল্লাসী করে দুটি আপেলের কাটন থেকে চোলাই মদ উদ্ধার করে। দুটি কাটনে ৪০ লিটার দেশীয় চোলাই মদ ছোট হরিণা বাজার ও সীমান্ত এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীরা পাচারের জন্য নিয়ে যাচ্ছে বলে পুলিশের প্রাথমিক ধারনা।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রমতে, প্রতি লিটার দেশীয় চোলাই মদের মূল্যে ৫০ টাকা। আর ভারতের রুপীতে প্রতি লিটার মদের মূল্য ১২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা। যা বাংলাদেশের টাকায় ১৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকার সমমান। যার কারণে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের মুনাফার লোভে প্রতিনিয়ত নদী পথে ট্রলার কিংবা যাত্রীবাহী লঞ্চে করে মদ পাচার করছে সীমান্তে। সীমান্তে পাচার হওয়া এসব মাদক সেবন করছে নানা বয়সের মানুষ। মাদক সেবীদের উৎপাতে সীমান্তের আইন শৃঃখলা পরিস্থিতি ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। এ মাদকের ছোবলে দুদেশের সীমান্ত এলাকায় প্রায় সময় অপহরণ খুনসহ নানা ধরণের অঘটন সংগঠিত হচ্ছে। সীমান্ত এলাকা প্রায় অরক্ষিত হওয়ায় আইন শৃঃখলা বাহিনী ও বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের (বিজিবি) মাদক সেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব হয় না।

এ ব্যাপারে বরকল থানার ওসি আব্দুল করিম জানান,প্রতি সপ্তাহের বুধ ও বৃহষ্পতিবারে ট্রলারে বা লঞ্চে করে গোপনে রাঙামাটি থেকে ছোট হরিণা বাজারে মাদক ব্যবসায়ীরা মদ নিয়ে যায় বলে আমাদের কাছে তথ্য রয়েছে। বুধবার বিরতিহীন লঞ্চ তল্লাসী করে মদ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা.সিআর.

Print Friendly