২০ আগষ্ট মধ্যরাত থেকে কাপ্তাই হ্রদে মাছ শিকারের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

10

আগামী ২০ আগষ্ট মধ্যরাত থেকে মাছ শিকারের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হচ্ছে। রোববার রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কাপ্তাই হ্রদে মৎস্য আহরণ সংক্রান্ত এক সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।

জেলা প্রশাসন সন্মেলন কক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তফা কামাল। বাংলাদেশ কর্পোরেশন কাপ্তাই কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক কমান্ডার মাইনুল ইসলাম চৌধুরী, উপ-ব্যবস্থাপক মাসুদুল আলম, প্রেসক্লাব সভাপতি সুনীল কান্তি দে, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মনিরুল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, কাপ্তাই হ্রদেও মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বলা হয়, কাপ্তাই হ্রদে মাছের প্রাকৃতিক প্রজনন সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হয়েছে এবং মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন হতে ২০ মেট্টিক টন কার্প জাতীয় মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়। তাই সঠিক সময়ে ও সঠিক ভাবে মাছের প্রজন্ম বংশ বিস্তার করায় আগামী ২০ আগষ্ট মধ্যরাত থেকে কাপ্তাই হ্রদে মৎস্য আহরন ও বাজারজাতকরণ পুনরায় চালু করা হবে। তবে কাপ্তাই হ্রদে ২০ আগষ্ট মধ্যরাত থেকে মাছ আহরন শুরু হলেও মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন ঘোষিত ৭ টি মৎস্য অভয়াশ্রমে মাছ আহরন বন্ধ থাকবে।

সভায় আরও বলা হয়, এ বছর কাপ্তাই হ্রদে মাছ ধরা বন্ধ মৌসুমে হ্রদের উপর নির্ভরশীল ১৮ হাজার ৯শত ৬০ জন দরিদ্র জেলেকে তিন মাসের জন্য বিশেষ ভিজিডি কার্ডের মাধ্যমে প্রত্যেককে ৬০ কেজি করে চাল দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি কাপ্তাই হ্রদে অবৈধ ভাবে মৎস্য আহরন বন্ধ এবং পাচার রোধ কল্পে কোষ্ট গার্ডের সদস্যদের নিয়োজিত করা হয়। পাশাপাশি সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি এবং আনসারের সদস্যরা ও সম্মিলিত ভাবে হ্রদে দায়িত্ব পালন করেন। এর ফলে এ বছর এ পর্যন্ত সফল ভাবেই হ্রদ হতে মৎস্য আহরনের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে।

উল্লেখ্য, কাপ্তাই হ্রদে মাছের সুষ্ঠু প্রজনন বংশ বৃদ্ধি, মজুদ এবং ভারসাম্য রক্ষার্থে গত ১ মে মধ্যরাত থেকে অনির্ষ্টিকালের জন্য হ্রদে সকল প্রকার মৎস্য আহরণ ও পরিবহন নিষেধাজ্ঞা জারী করে জেলা প্রশাসন।

Print Friendly