স্বতন্ত্র প্রার্থী আবছার আলীর নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট দাবি করে সংবাদ সন্মেলন কাজী মোঃ জালেয়ারের

ডেস্ক রিপোর্ট,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম 

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাঙামাটির ২৯৯ নং আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাডভোকেট আবছার আলীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নিজেকে প্রধান সমন্বয়কারী দাবী করেছেন কাজী মোঃ জালোয়া। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ব্যক্তিগত স্বার্থের কারণে পার্বত্য এলাকায় বসবাসরত বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের ক্ষতি করে চিহ্নিত আঞ্চলিক নেতাকে নির্বাচিত করার এজেন্ডা হিসেবে আবছার আলী নির্বাচন করছেন।

এদিকে আনারস প্রতীক আবছার আলী এক বিবৃতিতে তার বিরুদ্ধে একটি বিশেষ মহলবিভিন্ন প্রকার ষড়যন্ত্র চলাচ্ছে দাবী করে বলেছেন, নির্বাচন পরিচালনা করার জন্যতিনি কাউকে এজেন্ট হিসেবে নিয়োগ দেননি। তিনি নিজেই একমাত্র নির্বাচনী এজেন্ট ও নির্বাচন পরিচালনা করছেন।

মঙ্গলবার(৩১ ডিসেম্বর) শহরের একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত সংবাদ সন্মেলনে কাজী মোঃ জালোয়া তার লিখিত বক্তব্যে আরও বলেন, আবছার আলীর নির্বাচন পরিচালনার জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়। গঠিত কমিটি বিভিন্ন দিক নির্দেশনাও প্রদান করেন। কিন্তু কোন নির্দেশনা আমলে না নিয়ে নিজ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে একক ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন আবছার আলী। যার কারণে পার্বত্য এলাকায় বসবাসরত বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের আশা-আকঙ্কা পূরণ তো দুরের কথা ব্যক্তি পরিচয়ের জন্য নির্বাচন করছেন। এ অবস্থায় একজন ব্যক্তি পরিচিতির পক্ষে নিজের তথা বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের অস্তিত্বকে কোন অবস্থাতে বিপদগামী করতে দেওয়া যায় না।

সংবাদ সন্মেলনে পার্বত্য এলাকায় বসবাসরত বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের ক্ষতি করে চিহিৃত একটি আঞ্চলিক সংগঠনের নেতাকে নির্বাচিত করার এজেন্ডা থেকে ফিরে আসার জন্য আবছার আলীকে অনুরোধ  জানিয়ে আরও বলা হয়, আবছার আলী অন্য কোন পক্ষের এজেন্ডা বাস্তবায়নের লক্ষে নির্বাচনে করছেন এবং নির্বাচনকে ব্যবসা হিসেবে গ্রহণ করেছেন। তাই নির্বাচনের পর সেই দায়-দায়িত্ব তাকে বহন করতে হবে।অন্যথায় পার্বত্য জনগণ তাকে ক্ষমা করবে না।

এদিকে আবছার আলীর স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রচারনার কাজ সুষ্ঠভাবে সমাপ্ত করেছেন দাবি করে আরও বলেন, একটি বিশেষ মহল তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলকভাবে তার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার, কাউকে সমর্থন করা হয়েছে সাংবাদ সম্মেলন করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন এবং তাকে হেয় করার একটি চক্রান্ত। তার নির্তিবাচনী এজেন্ট হিসেবে তিনি কাউকে এজেন্ট নিয়োগ দেননি।

বিবৃতিতে তিনি বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন উল্লেখ করে রাঙামাটিবাসীরকে যে যার অবস্থান থেকে নির্বাচনে অংশগ্রনের জন্য অহ্বান করেছেন।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly