শনিবার রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের উদ্ধোধন প্রতিবাদে


পিসিপির রাঙামাটিতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক ও নৌথ পথ অবরোধ,মোকাবেলার ঘোষনা ছাত্রলীগের

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

hh

শনিবার রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্ধোধন হতে যাচ্ছে। রাঙামাটিতে মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন সংহযোগী সংগঠন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) আজ শনিবার রাঙামাটি জেলায় সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ ডেকেছে। তবে সরকার দলীয় ছাত্রলীগ মেডিকেল কলেজের বিরোধিতাকারী যে কোন অপশক্তিকে রাজপথে কঠোরভাবে মোকাবেলা করার ঘোষণা দিয়েছে। ফলে শহরবাসীর মাঝে উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের পাশে ভবনের চতুর্থ তলার অস্থায়ী ক্যাম্পাসে আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে  রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের আনুষ্ঠানিকভাবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্ধোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ অনুষ্ঠানকে সফল করতে ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। রাঙামাটি মেডিকেল কলেজে নতুন শিক্ষা বর্ষে এমবিবিএস কোর্সের মোট ৫১ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হয়েছেন। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরাসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তরা উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

এদিকে, পার্বত্য চুক্তি পুর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন না হওয়া পর্ষন্ত রাঙামাটিতে মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে পূর্বঘোষনা অনুযায়ী সন্তু লামরার নেতৃত্বাধীন সহযোগী সংগঠন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ শনিবার জেলায় সকাল-সন্ধ্যা সড়ক ও নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি ডেকেছে। গত রোববার শহরের বিক্ষোভ-মিছিল শেষে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে থেকে সংগঠনের সভাপতি জ্যোতিষ্মান চাকমা বুলবুল এ অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা দেন। সংগঠনের জেলা শাখার সভাপতি বাচ্চু চাকমা জানান, শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ কর্মসূচিতে বাধা দেয়া হলে তার পাল্টা প্রতিরোধ করতে বাধ্য হবে।

অপরদিকে,সরকার দলীয় সংগঠন জেলা ছাত্রলীগ রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ চালু করায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে শুক্রবার সংবাদ সন্মেলন ও আনন্দ র‌্যালী করেছে। র‌্যালীটি পৌর সভা চত্বর থেকে জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীযুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল,জেলা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল আলম সাইদুল,রাঙামাটি সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি জামাল প্রমুখ। জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সন্মেলনে জেলা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের বিরোধিতাকারী যে কোন অপশক্তিকে রাজপথে কঠোরভাবে মোকাবেলা করার ঘোষণা দেন। পাশাপাশি নেতৃবৃন্দ এলাকার বৃহত্তর জনস্বার্থে এ উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অগ্রযাত্রায় এগিয়ে নিতে এসে অবরোধ প্রত্যাহারের দাবি জানান। নেতৃবৃন্দ যারা মেডিকেল কলেজের বিরোধিতা করছে তাদেরকে পার্বত্য এলাকার সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য ও শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করার আন্দোলনে শামিল হওয়ার পিসিপির প্রতি আহবান জানান। ফলে মেডিকেল কলেজ উদ্ধোধনকে ঘিরে পিসিপির সড়ক ও নৌপথ অবরোধে কর্মসূচিকে ছাত্রলীগের রাজপথে কঠোরভাবে মোকাবেলার ঘোষনায় রাঙামাটি শহরবাসীর মাঝে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা  ও নানান শংকা দেখা দিয়েছে।

pcp

এছাড়া জেলায় সকাল-সন্ধ্যা সড়ক ও নৌপথ অবরোধের সমর্থনে শুক্রবার বিকালে পিসিপি জনসংহতি সমিতির জেলা শাখার কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে বনরুপা প্রেটোল পাম্প চত্বর ঘুরে গিয়ে সংগঠনের জেলা শাখা কার্যালয়ে সমাপ্ত হয়। এতে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে দেন পিসিপির কেন্দ্রীয় সভাপতি জ্যোতিষ্মান চাকমা বুলবুল।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুন ইমতিয়াজ সোহেল জানান, মেডিকেল কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে ঘিরে যাতে কেউ কোনো রকম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য পুলিশ সর্বাত্মক ব্যবস্থা নিয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন রাখতে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোস্তফা জামান জানান, পরিস্থিতি এখনও পর্যন্ত প্রশাসনের অনুকুলে রয়েছে। তবে কেউ কোনো রকম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইলে তা প্রতিরোধে প্রশাসনের পক্ষে সর্বাত্মক প্রস্তুতি রয়েছে। শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে যখন যা যা করা দরকার তা করবে।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly