রাজস্থলীর বাঙ্গালহালিয়া ডাকবাংলো পাড়া বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

caption
রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ডাকবাংলো পাড়া বৌদ্ধ বিহারের রোববার(২৭ অক্টোবর) প্রথমবারের মত কঠিন চীবর দানোৎব সম্পন্ন হয়েছে।

বাঙ্গালহালিয়া ডাকবাংলো পাড়া বৌদ্ধ বিহার মাঠে আয়োজিত কঠিন চীবর দানোৎসবে অনুষ্ঠান সূচির মধ্যে ছিল ভোরে  ভিক্ষু-সংঘের পানিয় দান, বিহারে বৌদ্ধ পাতাকা উত্তোলন, ধর্মীয় সংগীত পরিবেশন, পঞ্চশীল গ্রহণ, বৌদ্ধ পূজা ও সংঘদ দান। দুপুরে ধর্মীয় আলোচনা সভায় ধর্মদেশনা দেন পার্বত্য বোমাং সার্কেলের ৬ষ্ঠ মহাসংঘ নায়ক ভদন্ত উঃ ঞানাওয়াইসা মহাথেরকে আচারিয়া মহাগুরু। ধর্মীয় আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন রাঙ্গুনিয়া উপজেলার কমলছড়ি বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ঞানুত্তারা মহাথের। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাজস্থলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ডাকবাংলো পাড়া বৌদ্ধ বিহারের প্রতিষ্ঠাতা থোয়াইসুই খই মারমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন ৩নং বাঙ্গালহালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান গগনু মারমা, ঝাংকাপাড়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ উঃ সুরিয়া মহাথের, ক্ষেবুক পাড়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ উঃ কেসাবা মহাথের, বাঙ্গালহালিয়া অনাথ আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক নাই্যংছড়ি বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ও মায়ানমার সরকার কর্তৃক ভূষিত প্রাপ্ত উঃ ক্ষোমাচারা মহাথের। অনুষ্ঠানে শত শত বৌদ্ধ ধর্মালম্বী নারী-পুরুষ সমবেত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি থোয়াইসুই খই মারমা বলেন, পার্বত্য চট্রগ্রামে বিরাজমান তথা বিশ্বে একমাত্র শান্তি ফিরিয়ে আনতে পারে বৌদ্ধ ধর্মের প্রতিপালনের মাধ্যেমে। বৌদ্ধ ধর্মে নেই কোন হিংসা, তাই পার্বত্য এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য সকলেই বৌদ্ধের নীতি অনুসরন করতে পারলে শান্তি পাওয়া সম্ভব।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

Print Friendly