রাজস্থলীতে আওয়ামীলীগ নেতা মংক্য মারমার মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভার আয়োজন

স্টাফ রিপোর্টার, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Diponkor pic . 1

সোমবার  রাজস্থলী উপজেলার  আওয়ামীলীগ নেতা মংক্য মারমার প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়।

বাঙ্গালহালিয়া বাজার চত্বরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক  প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদা। বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার হ্লা থোয়াই অং মারমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা নিউচিং মারমা, কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অং সু ছাইন চৌধুরী, রাজস্থলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উথিন সিন মারমা, রাজস্থলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গাইন্দা ইউপি চেয়ারম্যান উবাচ মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি পুলক বড়–য়া, চাঁদমনি তঞ্চঙ্গ্যা, সাংগঠনিক সম্পাদক বিশ্বনাথ চৌধুরী, বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  ক্রেঙা মং মারমা প্রমুখ। এর আগে হত্যাকান্ডে জড়িত সকলকে গ্রেফতারের দাবীতে এক বিরাট শোক র‌্যালী বাঙ্গাল হালিয়া বাজার প্রদক্ষিণ করে সমাবেশ স্থলে গিয়ে শেষ হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার বলেন, রাজস্থলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মংক্য মারমাকে সন্ত্রাসীরা অবৈধ অস্ত্র দিয়ে হত্যা করেছে। এখানে পার্বত্য এলাকায় সন্ত্রাসীদের হাতে অবৈধ অস্ত্র থাকায় সাধারণ মানুষের কারো জীবন নিরাপদ নয়। এখানে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে ব্যবহৃত সকল অস্ত্রই অবৈধ। এই অবৈধ অস্ত্র দিয়ে পার্বত্যাঞ্চলে সন্ত্রাসীরা নিত্য দিন খুন, গুম, অপহরণ, চাঁদাবাজী চালিয়ে যাচ্ছে। এই অবৈধ উদ্ধার করা না হলে খুন, জখম, অপহরণ, চাঁদাবাজী এবং সাম্প্রদায়িকতার বিষবাস্প জনজীবনকে আরো বিপন্ন করে তুলবে।

তিনি মংক্য মারমার হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার পূর্বক, আইনানুগ শাস্তির ব্যবস্থা  ও অবৈধ অস্ত্র দিয়ে আর কারো জীবন প্রদীপ যেন অকালে নিবে না যায় তার ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের নিকট দাবী জানান।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২ ফেব্রুয়ারী বাঙ্গাল হালিয়ার নিজ বাসভবনে হত্যাকান্ডের শিকার হন আওয়ামী লীগ নেতা মংক্য মারমা। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৪ জনকে  আটক করেছে।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly