রাঙামাটি শহরে বিএনপি ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন আহতঃ গাড়ী ভাংচুর

hill pic

স্টাফ রিপোর্টার হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম
আজ শুক্রবার(২৮ অক্টোবর) রাঙামাটি শহরে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় ঐক্য জোটের বিক্ষোভ-সমাবেশে ঢিল ছোড়াকে কেন্ত্র করে চার পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, পূর্ব ঘোষিত কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুযায়ী আজ শুক্রবার বিকাল ৩টায় স্থানীয় বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা পৌর চত্বর থেকে বিক্ষোভ-মিছিল বের করে। মিছিলটি বনরুপা শহর প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসন কার্যালয় চত্বর সামনে গিয়ে সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ শুরু করে। এসময় সমাবেশ চলাকালে আকস্মিকভাবে একটি ঢিল ছূঁড়া হয়েছে বলে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে উঠে। এতে উত্তেজিত নেতাকর্মীরা পুলিশের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে ৪ পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। আহতদের নাম জানা যায়নি। সংঘর্ষ চলাকালে উত্তেজিত বিএনপিসহ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা রাস্তার পাশে রাখা মোটরসাইকল ও জীপসহ ৬টি গাড়ী, বেশ কয়েকটি দোকানপাট ভাংচুর এবং রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয় ভাংচুর চালায়। এসময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রায় শতাধিক টিয়ারশেল রাবার বুলেট ছুড়েঁছে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জেলা বিএনপি সভাপতি দীপেন দেওয়ান অভিযোগ করেছেনপুলিশের ইন্ধনে সরকার সমর্থিত লোকেরা ১৮ দলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা করা হয়েছে। তবে পুলিশ সুপার আমেনা বেগম বলেছেন, সরকারী সম্পদ রা ও সাধারণ জনগণের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট ছুড়েছে পুলিশ।

M2U08850

 পরে জেলা প্রশাসক র্কাযালয়রে সামনে ১৮ দলের নেতার্কমীরা প্রতিবাদ সভা করে বিনা উস্কানীতে শান্তিপুর্ন মিছিলের উপর হামলাকারী আওয়ামী সন্ত্রাসীদরে শাস্তি দাবি করেন। প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখনে,জেলা বিএনপির সভাপতি এ‍্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান, জেলা জামায়াতরে আমীর অধ্যাপক আব্দুল আলীম, এলডিপির সভাপতি আশাপূর্ণ চাকমা, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহ আলম, জেলা বিএনপির সাংগঠনকি সম্পাদক  সাইফুল ইসলাম পনির, পৌর বিএনপির সভাপতি ও পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম ভূট্টো, জামায়াত নেতা হারুনুর  রশিদসহ ছাত্রদল যুবদল ও ছাত্র-শিবিরেরর নেতাকর্মীর্রা।

সমাবশে জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি হাজি জহরি আহাম্মদ সওদাগর, বিএনপি নেতা লে:কর্নেল (অব) মণিষ দেওয়ান, জেলা যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল, ছাত্রদল সভাপতি আবু সাদাত মোঃ সায়েম, সদর থানা বিএনপির সভাপতি  এ্যাডভোকেট মামুনুর  রশিদসহ ১৮ দলের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/এনএ.

Print Friendly