রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে এক গ্রামবাসী অপহৃতঃ দুপক্ষের মধ্যে থেমে থেমে গুলি বিনিময়

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Gunfight Photohillbd24.com

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার রুপকারী ইউনিয়নের পাকুজ্যাছড়ি এলাকায়  বুধবার গভীর রাতে একদল দুর্বৃত্তরা বিক্রম কুমার চাকমা(৩৫) নামের এক গ্রামবাসীকে অপহরন করেছে।

অন্যদিকে, উপজেলার ঢলু বন্যা ও উলুছড়ির গহীণ অরণ্যে বিদমান দুই গ্র“প পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি(জেএসএস) ও ইউনাইটেড পিপলস ডেমেক্রেটিক ফ্রন্টের(ইউপিডিএফ) মধ্যে গতকাল বহস্পতিবার থেমে থেমে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। তবে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানায়, বাঘাইছড়ি উপজেলার রুপকারী ইউনিয়নের পাকুজ্যাছড়ি এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে একদল  দুর্বৃত্ত বাসা থেকে  বিক্রম কুমার চাকমকে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। তার ভাগ্য কি ঘটেছে তা  যায়নি। এ ঘটনায় এমএন লারমা গ্র“পের পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার বিভাগের সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা অপহৃত বিক্রম কুমার চাকমাকে তাদের সমর্থক দাবি করে এ ঘটনার জন্য সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছেন। তবে সন্তু লারমা গ্র“পের জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় সহ তথ্য ও প্রচার বিভাগের সম্পাদক সজীব চাকমা এ ঘটনায় জনসংহতি সমিতির কোন সম্পৃক্ততা নেই দাবি করে বলেছেন জনসংহতি সমিতি গুম অপহরণ, হত্যার কর্মকান্ডে  সাথে জড়িত নয়। অভিযোগটি সম্পুর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট।

অপরদিকে একই উপজেলার পৃথক দুটি স্থান বঙ্গলতলী ইউনিয়নের ঢলু বন্যা গহীন এলাকায় গতকাল সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ২টা এবং উলুছড়িতে ২টা থেকে সাড়ে তিন পর্ষন্ত  জেএসএস ও ইউপিডিএফের মধ্যে থেমে থেমে বন্দুক যুদ্ধের সংঘঠিত হয় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। তবে হতাহতের কোন খবরাখবর পাওয়া যায়নি।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজিজুল জক জানান, অপহরনের ঘটনাটি শুনেছেন। তবে অপহরনের ব্যাপারে কেউই অভিযোগ করতে আসেনি। এছাড়া উপজেলার পৃথক দুটি এলাকায় জেএসএস ও ইউপিডিএফের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধ হয়েছে বলে শুনেছি।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly