রাঙামাটিতে  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ রুম শীর্ষক কর্মশালা

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

1we

রাঙামাটিতে শনিবার মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমের অগ্রগতি ও পর্যালোচনা ও ভবিষৎ কর্ম- পরিকল্পনা নির্ধারন শীর্ষক দিন ব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের সন্মেলন কক্ষে দিন ব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তফা কামাল। অনুষ্ঠানে বক্তব্যে রাখেন আইসিটির মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন শীর্ষক প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক  প্রফেসর এ কে আজাদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এআাইটু প্রকল্পের কনস্যালট্যান্ট  আসাদ-উজ-জামান আইসিটি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাইফ উদ্দিন আহমেদ ও জেলা শিক্ষা অফিসার ফজলুর রহমান।

কর্মশালায় বলা হয়, আইসিটির মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় পার্বত্য জেলা রাঙামাটির ৪৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আইসিটি সামগ্রীর ল্যাপটপ, প্রজেক্টর, ইন্টারনেট মডেম সরবরাহ করা হয়েছে।  এর ফলে এই সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা আধূনিক তথ্য প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে তাদের লেখা পড়ার কাজ সম্পন্ন করতে পারবে। কর্মশালায় আরও জানানো হয়,জেলার ৯ টি উপজেলার ৪৫ টি  স্কুল ও কলেজের মধ্যে মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ চালুর জন্য  এই সব মূল্যবান আইসিটি সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে  ল্যাপটপ, মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টও, সাউন্ড সিস্টেম, ইন্টারনেট মডেল বিনামূল্যে প্রদান করা হয়েছে।

যে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ চালুর জন্য আইসিটি সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে তার মধ্যে বাঘাইছড়ি উপজেলার শিযক কলেজ, কাচালং হাই স্কুল, রুপালী হাই স্কুল, শিযকমূক হাই স্কুল, উসলছড়ি হাই স্কুল, বঙ্গলতলী হাই স্কুল, বাঘাইছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়, কাচালং  বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, উলুছড়ি মৌজা হাইস্কুল, বিলাইছড়ি উপজেলার বিলাইছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়, জুড়াছড়ি উপজেলার  ভূবনজয় সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, কাপ্তাই উপজেলার কর্ণফূলী ডিগ্রী কলেজ, নারানগিরি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়,পাহাড়িকা উচ্চ বিদ্যালয়, কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয়, পিডিবি হাই স্কুল,  ওয়াগ্গা উচ্চ বিদ্যালয়, কণৃফুলী নূরুল হুদা কাদেরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, কেধারসি উচ্চ বিদ্যালয়, চিৎমরম উচ্চ বিদ্যালয়, শহীদ সামশুদ্দীন গার্লস হাই স্কুল,, কাঊখালী উপজেলার কাউখালী কলেজ, বেতবুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, কাউখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, পোয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, লংগদু উপজেলার মাইনীমুখ উচ্চ বিদ্যালয়, লংগদু বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাবেতা মডেল কলেজ, নানিয়ারচর উপজেলার  নানণযারচর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, বেতছড়ি জেনারেল ওসমানী উচ্চ বিদ্যালয়, রাজস্থলী উপজেলার রাজস্থলী কলেজ, তাইতং পাড়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, বাঙ্গালহালিয়া উচ্চ বিদ্যালয় এবং রাঙ্গামাটি সদও উপজেলার  সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারী বালিকা  উচ্চ বিদ্যালয়, শহীদ আব্দুল আলী একাডেমী, রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়, রাণী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়, শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, মুজাদ্দেদ-ই-আলফেসানী একাডেমী, লেকার্স পাবলিক স্কুল, বড় মহাপুরুম উচ্চ বিদ্যালয়, মনোঘর উচ্চ বিদ্যালয়  রয়েছে।

কর্মশালায়  মাল্টিমিডিয়া ক্লাশরুম চালুকরনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের চ্যালেঞ্জ,  মাল্টিমিডিয়া ক্লাশরুম সমূহের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ করনীয়, ভবিষ্যৎ কর্ম পরিকল্পনা নির্ধারন এবং মাল্টিমিডিয়া ক্লাশরুম সক্রিয় করনে করনীয় শীর্ষক বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

 প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের  এঁটুআই প্রোগ্রামের সহযোগিতায় ও রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মশালায় জেলাধীন বিভিন্ন উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবং নির্বাচিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা  অংশ নেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ মোস্তফা কামাল বলেন তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে শিক্ষা ক্ষেত্রে উন্নয়নে বর্তমান সরকার অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে। এই সফলতার  ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্যে সকলকে কাজ করতে হবে। সরকারের রুপকল্প  ভিশন ও মিশন টুয়েন্টি-টুয়েন্টি ওয়ান অর্জন এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র।  তিনি মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টেরের মাদ্যমে পাঠদানকে একটি মহতী উদ্যোগ হিসাবে আখ্যায়িত করে বলেন এর মাধ্যমে শিক্ষাথৃীরা তথ্য -প্রযুক্তির মাধ্যমে তাদেও জ্ঞানের পরিধিকে সম্প্রসারিত করতে পারবে।  তিনি যে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাশ চালুর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরন প্রদান করা হয়েছে সে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান গনকে এই প্রযুক্তির যথাযথ প্রয়োগ নিশ্চিত করার আহবান জানান এবং এই কার্যক্রম মনিটিরিং এর  জন্য জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদেও আহবান জানান।

 –হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর

Print Friendly