রাঙামাটিতে যক্ষা নিয়ন্ত্রন কার্যক্রমঃ অগ্রগতি ও চ্যালেঞ্জ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

IMG_3929

যক্ষা নিয়ন্ত্রন কার্যক্রমঃ অগ্রগতি ও চ্যালেঞ্জ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক সোমবার রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গোল টেবিল বৈঠকে ব্ক্তারা বলেছেন, জনসচেতনাই পারে একমাত্র যক্ষা রোগ নির্মুল করতে। তাই সামাজিকভাবে সচেতনা বৃদ্ধিতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সন্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় যক্ষা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি স্বাস্থ্য বিভাগ এবং ব্র্যাক রাঙামাটি ও রাঙামাটি প্রিণ্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দের উদ্যোগে গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন সিভিল সার্জন ডা.স্নেহ কান্তি চাকমা।

প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার আমেনা বেগম, অতিরিক্তজেলা প্রশাসক(সার্বিক) মোস্তফা জামান, পরিবার পরিকল্পনার জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শাহনাজ বেগম, দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক একেএম মকছুদ আহম্মেদ ও সাবেক সিভিল সার্জন ডা. উদয় শংকর দেওয়ান। মুল প্রবন্ধ পাঠ করেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তা ডা.বিনোদ শেখর চাকমা। স্বাগত বক্তব্যে রাখেন ব্র্যাক কর্মকর্তা ডা.কেতি চাকমা।

গোল টেবিল বৈঠকে বলা হয়, রাঙামাটি জেলায় ২০১৩ সালে ৬শ৬৭ জন যক্ষা রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে আরোগ্য লাভ করেছে ৯৬ শতাংশ জন। এর মধ্যে শিশু যক্ষা রোগে আক্রান্ত হয়েছে ১২ জন এবং মাল্টি ড্রাগ রেজিষ্টেন(এমডিআর) আক্রান্ত হয়েছে ১জন। চলতি বছরে সেপ্টেম্বও মাস পর্ষন্ত যক্ষা রোগে আক্রান্ত হয়েছে ৪শ৯৭ জন ও আরোগ্য লাভ করেছে ৯৭ শতাংশ। এর মধ্যে শিশু ৬জন ও এডিআর আক্রান্ত হয়েছে ৩ জন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা বলেন, যক্ষা নিয়ন্ত্রনের জন্য জনসচেতনার সৃষ্টিতে কিছুটা যক্ষা রোগ নিয়ন্ত্রন করা গেছে। এখানকার  আঞ্চলিক পত্রিকাগুলো যক্ষা রোগের সচেতনা বৃদ্ধির জন্য কাজ করতে পারে। এছাড়া স্কুল-কলেজ, ইউপি কার্যালয়সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক গণ সচেতনা সৃষ্টি করতে পারি তাহলে যক্ষা রোগে প্রতিরোধে তরাম্বিত হবে। তিনি আরও বলেন,ভেকসিন হচ্ছে জনসচেতনা। যক্ষা রোগের ভেকসিন যতক্ষন পর্ষন্ত উদ্ভাবন করতে পারছি না ততক্ষন পর্ষন্ত জনসচেতনাকে ভেকসিন হিসেবে ব্যবহার করতে পারবে। তিনি সংবাদকর্মীদের লেখনীর মাধ্যমে যক্ষা রোগের সচেতনা সৃষ্টি করার জন্য আাহ্বান জানা।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly