রাঙামাটিতে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বনভান্তের তৃতীয় পরিনির্বাণ বার্ষিকী উদযাপিত

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েনিটফোর ডটকম

Rangamati Pic-30-01-15-1

রাঙামাটির রাজ বন বিহারের অধ্যক্ষ ও মহাপরিনির্বাণপ্রাপ্ত আর্যপুরুষ শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবিরের(বনভান্তে) তৃতীয় পরিনির্বাণ বার্ষিকী শুক্রবার বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়েছে।  এছাড়া এ উপলক্ষে রাজ বন বিহার পালি স্কুল এন্ড কলেজেরও শিক্ষা কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বনভান্তে ১৯২০ সালে ৮ জানুয়ারী রাঙামাটি সদর উপজেলার মগবান ইউনিয়নের মোড়ঘোনা গ্রামে জন্ম গ্রহন এবং ২০১২ সালের ৩০ জানুয়ারী দেহ ত্যাগ(মহাপ্রয়ান) করেন। তাঁর ভক্ত ও পুর্নার্থীদের শ্রদ্ধা ও দর্শনের জন্য বর্তমানে রাজ বন বিহারে বনভান্তের মরদেহ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে বিশেষ কফিনে রাখা রয়েছে।

বনভান্তের তৃতীয় পরিনির্বাণ বার্ষিকী উপলক্ষে সকালের দিকে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে রাঙামাটির রাজ বনবিহারে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে বিশেষ কফিনে রাখা বনভান্তের পবিত্র দেহ ধাতুতে(মরদেহ) পুষ্পাঞ্জলি করা হয়। এর পর রাজ বনবিহার মাঠে অনুষ্ঠিত ধর্মীয় সভায় প্রথমে পঞ্চশীল গ্রহন, বুদ্ধমূর্তি দান, সংঘদান, অষ্টপরিস্কার দান ও উৎসর্গ অনুষ্ঠিত হয়। পরে ধর্ম দেশনা দেন রাঙামাটি রাজ বন বিহারের আবাসিক ভিক্ষু সংঘের প্রধান প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবির ও জ্ঞানপ্রিয় মহাস্থবির। বক্তব্যে দেন  চাকমা রাজা সার্কেল চীফ দেবাশীষ রায়।

Rangamati Pic-30-01-15-3

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিকালের দিকে রাজ বন বিহারস্থ পালি কলেজ মাঠে ধর্ম সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে রাঙামাটি রাজ বন বিহারের আবাসিক ভিক্ষু সংঘের প্রধান প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবিরের সভাপতিত্বে ধর্ম দেশনাদেন ইন্দ্রগুপ্ত মহাস্থবির ও শাসন রক্ষিত মহাস্থবির। অনুষ্ঠানে হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ নারী-পুরুষ অংশ গ্রহন নেন। অনুষ্ঠান শেষে বনভান্তের রেকর্ডকৃত সদ্ধর্ধ দেশনা বাজানো হয়। সন্ধ্যায় সার্বজনীন প্রদীপ প্রজ্জ্বল করা হয়।

এর আগে  দিকে রাঙামাটি রাজ বন বিহাস্থ পালি স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন রাজবন বিহারের আবাসিক প্রধান শ্রীমৎ প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও জেলা আওয়ামালীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার। রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সাবেক পার্বত্য উপমন্ত্রী মনি স্বপন দেওয়ান, স্থানীয় সরকার পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপাসক উপাসিকা পরিষদের সিনিয়র সহসভাপতি গৌতম দেওয়ান, সহসভাপতি নিরূপা দেওয়ানসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গতঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অধিনস্ত রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কর্তৃক  ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে  বনভান্তে পালি স্কুল এন্ড কলেজের একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly