২১ ফেব্রুয়ারী প্রভাত ফেরী ও শহীদ মিনারে ফুল দেয়া থেকে বিরত থাকার ঘোষনা দিয়েছে পিসিপি

ডেস্ক রিপোর্ট, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Picture1 pcp

মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা প্রবর্তনের সরকারের গড়িমসি, পার্বত্য চট্টগ্রামে দমন-নীপিড়ন জোরদারের লক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের বিশেষ নির্দেশনা জারির প্রতিবাদে আগামী ২১ফেব্রুয়ারী প্রভাত ফেরী ও শহীদ মিনারে ফুল  দেয়া থেকে বিরত থাকার ঘোষনা  দিয়েছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)।

 বৃহস্পতিবার ইউপিডিএফের সমর্থিত পিসিপির কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপুল চাকমার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় পিসিপির কেন্দ্রীয় সভাপতি থুইক্রচিং মারমা ও সাধারন সম্পাদক রিটন চাকমার সংবাদ মাধ্যমকে পাঠানো এ বিবৃতিতে এ কথা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

 প্রেস বার্তায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ৫২ সালে ভাষা আন্দোলনের শহীদ রফিক-বরকত-জব্বারদের আত্নবলিদানের প্রতি গভীর সন্মান জানিয়ে বলেন, পিসিপি শহদিদের যতাযথ সন্মানদেয়। কিন্তু ক্ষমতাসীন সরকার তথা শাসকগোষ্ঠীর হীন স্বার্থচরিতার্ত করতে জাতীয় শহীদদের সন্মান, ভাষা ও সংস্কৃতিকে নিজেদের একচেটিয়া কারবারে পরিণত করেফেলেছে। যা পিসিপি নিটক গ্রহনযোগ্য নয়। পাকিস্তানি শাসকদের মত বাংলাদেশের শাসকগোষ্ঠীও ভিন্ন ভাষাভাষীদের মাতৃভাষা স্বীকৃতি দিচ্ছে না।

 বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের অন্যান্য ভাষার যতাযোগ্য স্বীকৃতি দিয়ে শহীদদের মহান আত্নত্যাগের প্রতি সন্মান জানোর জন্য সরকারে প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly