মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ ৫ দফা দাবিতে নানিয়ারচর ও কাউখালীতে পিসিপি’র বিক্ষোভ

ডেস্ক রিপোর্ট, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Picture03

 সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুসহ শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবিতে মঙ্গলবার নানিয়ারাচর ও কাউখালী উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় বলা হয়, পিসিপির নানিয়ারচর উপজেলা শাখার উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পিসিপি নানিয়ারচর উপজেলা শাখার সভাপতি রিপন আলো চাকমা। বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনিল চাকমা, ২নং নানিয়ারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিনয় কৃষ্ণ খীসা, ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার সেন্টু চাকমা ও যুব নেতা অতীশ চাকমা। এর আগে একটি  বিক্ষোভ মিছিল বের হয়েছে নানিয়ারচর বাজার প্রদক্ষিণ করে।

অপরদিকে, একই দাবিতে কাউখালী উপজেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে পিসিপি কাউখালী উপজেলা  শাখার সভাপতি কংচাই মারমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পিসিপি রাঙামাটি জেলা শাখার সভাপতি বাবলু চাকমা ও পিসিপি’র সাবেক কেন্দ্রীয় সহ সাধারণ সম্পাদক রূপন মারমা। এর আগে একটি বিক্ষোভ-মিছিল উপজেলা সদরের কচুখালী খেলোয়াড় সমিতি মাঠ থেকে শুরু করে চৌমুহনী ঘুরে শেষ হয়।

সমাবেশে  ৫ দফা দাবি তুলে ধরা হয়।সেগুলো হ) পার্বত্য চট্টগ্রামে সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা লাভের অধিকার নিশ্চিত করা, জাতিসত্তার প্রতি যে কোন অবমাননাকর বক্তব্য পাঠ্য পুস্তক থেকে বাদ দেয়া, পাহাড়ি জাতিসত্তার সঠিক ও সংগ্রামী রাজনৈতিক ইতিহাস সম্বলিত পুস্তক পাবর্ত্য চট্টগ্রামের স্কুল-কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভূক্ত করা, বাংলাদেশের সকল জাতিসত্তার সংক্ষিপ্ত সঠিক তথ্য সম্বলিত পরিচিতিমূলক পুস্তক বাংলাদেশের জাতীয় শিক্ষাক্রমে অর্ন্তভুক্ত করা ও পার্বত্য কোটা বাতিল করে পাহাড়ি কোটা চালু করা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার পিসিপি’র উত্থাপিত সকল জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষাসহ ৫ দফা দাবি বাস্তবায়ন না করে রাঙামাটিতে মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের নামে ভূমি বেদখলের ষড়যন্ত্র করছে। সরকার ২০১৪ সাল থেকে ৬টি জাতিসত্তার মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা চালুর কথা বললেও আজো তা বাস্তবায়নের মুখ দেখেনি। এদেশে শিক্ষার মাধ্যম বাংলা হওয়ার কারণে ভিন্ন ভাষাভাষি জাতিসত্তার শিশুরা অনেকেই প্রাথমিক লেভেল থেকে মুখ থুবড়ে পড়ে যাচ্ছে। বক্তারা পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের শিক্ষা সংক্রান্ত ৫ দফা দাবি মেনে নিয়ে অবিলম্বে বাস্তবায়নের দাবি জানান।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly