মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে টানাহেছড়া দীঘিনালায় জেএসএস— ইউপিডিএফ মুখোমুখি

জাহাঙ্গীর আলম রাজু ,দীঘিনালা, হিলবিডিটোয়ন্টিফোর ডটকম

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় রাস্তার ওপর এক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জেএসএস ও ইউপিডিএফের  টানাহেছড়ার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় উপজেলার লারমা স্কোয়ারে এ ঘটনা ঘঠেছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেএসএস ও ইউপিডিএফের নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটতে পারে এমন আশংকায় উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানসহ প্রার্থীর বাড়িতে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

dighinala(khagrachari)-pic-12-03-2014hillbd24.com
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী গোপা দেবী চাকমাকে জোরপূর্বক মনোয়নপত্র প্রত্যাহার করার জন্য ইউপিডিএফ জেলা রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়ার সংবাদ পেয়ে জেএসএস সমর্থিত লোকজন লারমা স্কোয়ারে ব্যারিকেড সৃষ্টি করে। এসময় সকাল সাড়ে ৯ টায় তিনজন ইউপিডিএফ সদস্যসহ গোপা দেবী চাকমা সিএনজি যোগে লারমা স্কোয়ারে পৌছলে জেএসএস’র লোকজন গোপা দেবী চাকমাকে তাদের সংগঠনের মনোনীত প্রার্থী দাবী করে  সিএনজি থেকে নামিয়ে নেয়ার চেষ্ট করে। এসময় গোপা দেবী চাকমা উভয় সংগঠনের সমর্থকদের টানাহেছড়ার শিকার হন। পরে পুলিশ এসে গোপা দেবী চাকমাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে নিরাপদ হেফাজতে নিয়ে যান।

ঘটনার পর উপজেলা নির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে গোপাদেবী চাকমা জানান, মনোয়নপত্র প্রত্যাহার করার  জন্য একটি আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে আমাকে বেশ ক’বার হুমকি দেয়া হয়েছে। বুধবার   মনোয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। তাই তাদের লোকজন আমাকে জোরপূর্বক মনোয়নপত্র প্রত্যাহার করার জন্য জেলা রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে যাচ্ছিল। জনগন আমাকে তাদের হাত থেকে রক্ষা করেছে। আমি নির্বাচন করতে চাই এবং প্রশাসনের কাছে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা চাই। এ বিষয়ে এমএন লারমা সমর্থিত যুব সমিতির উপজেলা সভাপতি সমীর চাকমা গোপা দেবী চাকমাকে তাদের সংগঠনের মনোনীত ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে  দাবী করে জানান, ইউপিডিএফ আমাদের এই প্রার্থীকে মনোয়নপত্র প্রত্যাহার করার জন্য বেশ কয়েকবার হুমকি দিয়েছে।

বুধবার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ ছিল বিধায় তারা গোপাদেবী চাকমাকে জোরপূর্বক জেলা রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে যাচ্ছিল। এসময় সংগঠনের নেতাকর্মী ও  গোপা দেবী চাকমার সমর্থকরা ইউপিডিএফের হাত থেকে তাকে রক্ষা করেছে বলে জানান তিনি।  ইউপিডিএফের উপজেলা সংগঠক কিশোর চাকমা এ অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, নির্বাচনী মাঠে জনসমর্থন না থাকায় গোপাদেবী চাকমা প্রার্থীতা প্রত্যাহারের বিষয়ে আমাদের সহযোগিতা চেয়েছেন। তাই তাকে জেলা রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।  যাওয়ার পথে জেএসএস’র লোকজন লারমা স্কোয়ারে গাড়ী থামিয়ে গোপা দেবী চাকমাকে অপহরণ করে। পরে পুলিশ গোপা দেবী চাকমাকে উদ্ধার করে বলে জানান তিনি।

উপজেলা সহকারী রির্টানিং অফিসার ইউএনও ফজলুল জাহিদ পাভেল জানান, যে কারনে লারমা স্কোয়ারে এই ঘটনা ঘটেছে প্রার্থীর সাথে কথা বলে তার সত্যতা পাওয়া গেছে। জোরপূর্বক প্রার্থীতা প্রত্যাহারের বিষয়টি স্বীকার করে গোপা দেবী চাকমা নিরাপত্তা চেয়েছেন বলে জানান তিনি।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ সাহাদাত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যাতে কোনো প্রকার অত্যাশিত ঘটনা না ঘটে সেজন্য উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানসহ প্রার্থীর গ্রামের বাড়িতে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন করতে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রার্থীদের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রদান করা হবে বলে জানান তিনি।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly