দি মিজোরাম পোষ্টে প্রকাশিত রিপোর্টের তথ্যে


ভারতের মিজোরামে অস্ত্রশস্ত্র ও দুই বাংলাদেশীসহ ৫ জনকে আটক করেছে বিএসএফ

ডেস্ক রিপোর্ট, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

xsরাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক সীমান্তবর্তী ভারতের মিজোরাম রাজ্যের আইজলের লুংপেই এয়ারপোর্ট রোড এলাকায় বৃহস্পতিবার বিপুল পরিমানের অস্ত্রশস্ত্র ও দুই বাংলাদেশীসহ ৫জনকে আটক করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী(বিএসএফ)। শুক্রবার ভারতের মিজোরাম রাজ্যে থেকে প্রকাশিত দি মিজোরাম পোষ্ট পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্টে এ তথ্যে জানা গেছে।

cz

দি মিজোরাম পোষ্ট পত্রিকাটির প্রকাশিত ছয় কলামের শীর্ষ খবরে উল্লেখ করা হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভারতীয় গোয়েন্দা পুলিশের(সিআইডি) সহায়তায় বিএসএফের মিজোরাম রাজ্যের ডিআইজি ইউএম শুভ্রমানি, গোয়েন্দা উইংস-এর ডিসি(জি) কমান্ডেন্ট এস রাতোরের নেতৃত্বে আইজলের লুংপেই এয়ারপোর্ট রোড এলাকায় একটি টাটা সুমো গাড়ীতে(নং-এমজেড-০১জে-০২৭৪) অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় গাড়ী তল্লাশি চালিয়ে ৫.৫৬ এমএম সাইজের ইউএসএ-এর তৈরী ৫টি এম-১৬ রাইফেল, চার হাজার একে ৪৭ রাইফেলের গুলি, ১১শ এম-১৬-এ গুলি, একে ৪৭-এর ১টি ম্যাগজিন, এম-১৬এর ৫টি ম্যাগজিন, ভারতীয রুপি ৮৮ হাজার ৭৫ টাকা ও ১০টি মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়।

এসময় দুই বাংলাদেশী ও ৩ জন ভারতীয়কে আটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে বাংলাদেশী নাগরিক হলেন রাঙামাটির লংগদু উপজেলার মোনা চাকমার ছেলে সৌমিত্র চাকমা(২৮), বাঘাইছড়ি উপজেলার মৃনাল কান্তি চাকমার ছেলে জিউস চাকমা(২৮)। ভারতীয় তিন নাগরিক হলেন মিজোরার রাজ্যের মামিট জেলার পশ্চিম পাইলিং এলাকার চানরান চাকমার ছেলে জয় চাকমা(৩১), পশ্চিম পাইলিং-এর রাজীব নগরের অমিত বর্মন চাকমার ছেলে দীপংকর চাকমা(৩৩) এবং একই এলাকার চলু চন্দ্র চাকমার ছেলে পুর্ন জয় চাকমা(৪৫)। আটকের পর তাদের মিজোরাম রাজ্যে পুলিশের কাজে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 দি মিজোরাম পোষ্টে দাবি করা হয়, আটককৃত দুই বাংলাদেশী নিজেদের পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সক্রিয় কর্মী বলে জানিয়েছেন।

প্রকাশতি ওই পত্রিকায় আরও বলা হয়, গত বছর মিজোরাম রাজ্যের লেংপুই এয়ারপোর্ট এলাকা থেকে মিজোরাম পুলিশ ও আসাম রাইফেলস ৩১টি একে-৪৭ রাইফেল, ১টি হালকা মেসিনগান(এলএমজি), ৮শ রাউন্ড গুলি ও ৩২টি ম্যাগজিনসহ তিন বাংলাদেশী নাগরিককে আটক করা হয়। ভারতের নর্থ-ইষ্ট অঞ্চলে এটাই ছিল সবচেয়ে বড় ধরনের উদ্ধারকৃত অবৈধ অস্ত্রের চোরাচালান।

এদিকে,বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম আজিজুল হক সাংবাদিকদের জানান, ভারতের মিজোরাম সীমান্তে অস্ত্রসহ কয়েকজন ব্যক্তিকে বিএসএফের সদস্যরা আটক করেছে বলে লোকমুখে শুনেছি।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির(পিসিজেএসএস) কেন্দ্রীয় সহ তথ্য ও প্রচার বিভাগের সম্পাদক সজীব চাকমার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আটক দুই বাংলাদেশী তার সংগঠনের কোন সদস্য নয়। পাশাপাশি এ বিষয়টির ব্যাপারে তার জানা নেই।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly