বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদে খেয়াং সম্প্রদায়ের একজন সদস্য অর্ন্তভুক্ত করা হবে—পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী

বান্দরবান প্রতিনিধি,বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর ডটকম

picBiR

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের দায়ীত্ব প্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এম পি বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তী ও সহবস্থানের লক্ষে  প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৭ সালে ২ ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন। ইতোমধ্যে চুক্তির ৩৩ টি ধারার মধ্যে ২৯টি ধারা বাস্থবায়ন করা হয়েছে,বাকিগুলোকেও ধাপে ধাপে বাস্তবায়ন করা হবে।

তিনি আরও বলেন খেয়াং সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি সরুপ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের অন্তরবর্তী কাঠামোতে খেয়াং সম্প্রদায় থেকে একজন সদস্য অর্ন্তভূক্ত করা হবে।

বৃহস্পতিবার বান্দরবানে প্রতিমন্ত্রীর বাস ভবনে খেয়াং সম্প্রদায়ের ৫ শত বিএনপির নেতা-কর্মীর আওয়ামীলীগে যোগদান অনুষ্ঠনে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে বসবাসরত ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র নৃ গোষ্টির কোন সাংবিধানিক স্বীকৃতি ছিল না। জননেত্রী শেখ হাসিনা আজ সকল জনগোষ্টিকে সাংবিধানিক স্বীকৃতি প্রদান করার কারনে আমরা আজ স্ব স্ব জাতী সত্ত্বার পরিচয় দিতে পারছি। তিনি বলেন বান্দরবানের আওয়ামীলীগে কোন সন্ত্রাসী বা চাঁদাবাজদের ঠাই নেই। বান্দরবান আওয়ামীলীগ উন্নয়নে বিশ্বাস করে বলেই বিএনপির নেতা-কর্মীরা আওয়ামীলীগে যোগদান করে দেশ সেবার সঠিক পথে এগিয়ে আসছেন।

 প্রতিমন্ত্রী আওয়ামীলীগে যোগদান কারীদের উদ্দেশ্যে বলেন আসুন আমরা সবাই একই মায়ের সন্তান হিসেবে একই পরিবারের ভাই বন্ধু হিসেবে সম্মিলিতভাবে দেশ ও জনকল্যানে নিবেদিত হয়ে কাজ করে একটি সুখী সমৃদ্ধীশালী বাংলাদেশ গড়ি।

অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বান্দরবান জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ও বিএনপির নেতা  বাচা খেয়াংএর নেতৃত্বে বান্দরবান সদর ও রোয়াংছড়ি উপজেলার ৫শতাধিক বিএনপির নেতা-কর্মী প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের হাতে ফুল দিয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly