বান্দরবানে আওয়ামীলীগের থানা ঘেরাও, পুলিশের লাঠি চার্জ, গ্রেপ্তার ২

বান্দরবান প্রতিনিধি, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

???????????????????????????????

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার রাতে বান্দরবানে আওয়ামীলী ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকমীদের সাথে পুলিশের মধ্য সংঘর্ষ ও থানা ঘেরাও ঘটনা ঘটেছে এই ঘটনায় পুলিশ পৌর কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল বশর  ও যুবলীগ নেতা মো: কবির’কে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সূয়ালকে মদ্যপান করে সাবেক এক ইউপি মেম্বার’কে জুতা মারেন আওয়ামীলীগের কর্মী রুন্জু। এই ঘটনার জের ধরে শুক্রবার রাতে সদর থানার গেইটে আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। ঝগড়া থামাতে গেলে সদর থানার এসআই এনামের উপর চড়াও হয় কৃষকলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মীরা। খবর পেয়ে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে কৃষকলীগ নেতাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। খবর পেয়ে আটক নেতাকে ছাড়িতে নিতে কৃষকলীগের জেলা সভাপতি প্রজ্ঞাসার বড়–য়া পাপন, সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা এবং যুবলীগ নেতা মো: কবিরের নেতৃত্বে কৃষকলীগ’সহ আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরারা জড়ো হয়ে থানা ঘেরাও করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ঘটনাস্থলে লাঠিচার্জ করে। এসময় আওয়ামীলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য কাজী মুজিবুর রহমান উপস্থিত হলেও পরিস্থিতি আরও ঘোলাটে হয়ে উঠে। অবশ্যই পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

এদিকে পুলিশ অফিসারের উপর হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ পৌর কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল বশর এবং যুবলীগ নেতা মো: কবির দুজনকে আটক করেছে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহম্মেদ জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ কর্মকর্তার উপর হামলা এবং আসামী ছাড়িয়ে নিতে সদর থানা ঘেরাও করার ঘটনা দু:খজনক। এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে থানায় মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আবুল বশর এবং মো: কবির দুজনকে শনিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর

Print Friendly