বান্দরবানের অনগ্রসর ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে পার্বত্য উন্নয়ন বোর্ডের বৃত্তি প্রদান

বান্দরবান প্রতিনিধি, হিলবিডিটোয়েন্টিফো ডটকম

Bandarban Pic

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে শুক্রবার বান্দরবান জেলায় বসবাসরত অনগ্রসর ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান অঞ্চলের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস-চেয়ারম্যান তরুন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক কেএম তারিকুল ইসলাম,পুলিশ সুপার দেব দাশ ভট্ট্যাচার্য, বান্দরবান সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ আবু তাহের ভুঞা, বান্দরবান সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রদীপ বড়ুয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চলানা করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আবদুল আজিজ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বান্দরবান পার্বত্য জেলায় এ বছর ২ শত৩৯ জন মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদেরকে ক-শাখায় ৩ হাজার ৬ শত টাকা এবং খ-শাখায় ২ হাজার ৪ শত টাকা করে মোট ৭ লক্ষ ২৯ হাজার ৬ শত টাকা বৃত্তি প্রদান করেছে। অনুষ্টানে ছাত্রদের পক্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্র পার্থ প্রতিম বড়ুয়া এবং মহিলাদের পক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কলেজের বিবিএ-এর ছাত্রী শান্তা বড়ুয়া বক্তব্য রাখেন। ২০১৩-২০১৪ অর্থ বছরে খাগড়াছড়ি,বান্দরবান এবং রাঙামাটি জেলায় বসবাসরত  অনগ্রসর  ও মেধাবী  ৮ শত ১১ জন ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে ২৪ লক্ষ ৭৩ হাজার ২শত টাকা  বিতরণ করা হয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান তরুন কান্তি ঘোষ মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন প্রত্যক ছাত্র ছাত্রীদের দুটি গুন রয়েছে। একটি হচ্ছে মানবিক গুন এবং অপরটি হচ্ছে পাশবিক গুন। তিনি প্রত্যক ছাত্র ছাত্রীদের পাশবিক গুন পরিত্যাগ করে মানবিক গুনে গুনাম্বিত হয়ে দেশ গড়ার কাজে অংশ গ্রহনের আহবান জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি পার্বত্য জনপদের প্রতিটি ছাত্র-ছাত্রীকে সু-শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলে গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর এই বৃত্তি চালু করেছিল। কিন্তু বিএনপি জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর বার বার বন্ধ করে দিয়েছিল। আগামীতে বৃত্তির অর্থ এবং মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে।

তিনি ছাত্র ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন পার্বত্য জনপদ বান্দরবানের উন্নয়ন এবং প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষিত করে গড়ে তোলার কাজে অংশীদার হয়ে শিক্ষার হার বাড়ানোর কাজে সহযোগীতার আহবান জানান।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly