বরকলে এক গৃহবধুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ

 বরকল প্রতিনিধি, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Picture4

 রাঙামাটির বরকল উপজেলার সুবলং বাজারের উত্তর পাড়ায় এক গৃহবধু (১৯)কে আমিন ভান্ডারী (৪৫) নামে এক ভন্ড কবিরাজ ধষর্ণের চেষ্টা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিকালে ওই গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে বরকল থানায় মামলা দায়ের করেন।

বরকল থানায় দায়ের করা মামলার বিবরণে জানা যায়, সুবলং বাজারের উত্তর পাড়ায় কবিরাজ আমিন ভান্ডারীর বাড়িতে দুমাস ধরে ভাড়াটিয়া হিসেবে স্ত্রীকে নিয়ে থাকতো মোঃ ইউনুছ। ইউনুছ পেশায় জেলে। স্ত্রীর জটিল রোগটি সারাতে অনেক চিকিৎসক ও  কবিরাজের শরণাপন্ন হয়েও রোগ সরাতে পারেননি। পরে বাড়ির মালিক কবিরাজ আমিন ভান্ডারী তার স্ত্রীর রোগটি সরাতে পারবেন বলে আশ্বাস দিলে তার কথায় বিশ্বাস করে চিকিৎসা করাতে রাজি হন ইউনুছ। তবে শর্ত ছিল গভীর রাতে চিকিৎসা করতে হবে জানান ভন্ড কবিরাজ আমিন ভান্ডারী। তার কথামত রাজী হয়ে বুধবার রাত আনুমানিক ১টার সময় স্ত্রী ও তার শাশুড়ীকে আমিন ভান্ডারীর কাছে পাঠান ইউনুছ। চিকিৎসার নামে আমিন ভান্ডারী ইউনুছের স্ত্রীকে রেখে শাশুড়ীকে বের করে দিয়ে দরজা বন্ধ করেন। এক পর্যায়ে ঝাপটে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে ওই গৃহবধূ চিৎকার ইউনুছ ও তার শাশুড়ী গিয়ে ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা করেন।

এ ব্যাপারে গৃহবধূর মা জানান, আমরা গরীব মানুষ মেয়ের উন্নত চিকিৎসা করার সামর্থ্য নেই। আমিন ভান্ডারীর কথায় বিশ্বাস করে আমার মেয়ের সর্বনাশ করতে চেয়েছিল। আমি তার উপযুক্ত বিচার চাই।

সুবলং ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড মেম্বার নন্দিত চাকমা (কান্তি) জানান, আমিন ভান্ডারী এলাকায় একজন ভন্ড কবিরাজ। চিকিৎসার নামে এলাকায় অনেক মেয়েকে নষ্ট করতে চেয়েছিল বলে তার অভিযোগ।

 বরকল থানার এস আই মোঃ হাসান জানান, এ ব্যাপারে ওই গৃহবধূ নিজেই থানায় এসে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly