বনভন্তের প্রথম সাধনাস্থল ধনপাতা বন বিহারে  বৃহস্পতিবার থেকে দুদিনের কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়ন্টিফোর ডটকম

kk

রাঙামাটির রাজবন বিহারের মহাপরিনির্বাণ প্রাপ্ত পার্বত্য ধর্মীয় গুরু বনভন্তের প্রথম সাধনাস্থল ধনপাতা বন বিহারে বৃহস্পতিবার থেকে দুই দিনের ১০তম দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় বেইন ঘর উদ্বোধনের মাধ্যমে কঠিন চীবর দানোৎসবের সূচনা করা হবে। রাজবন বিহারের শীর্ষ ভিক্ষু সংঘ বেইন ঘর উদ্বোধন করবেন। কঠিন চীবর প্রস্তুত করতে  ধনপাতা বন বিহারে  বিভিন্ন পাহাড়ি গ্রাম থেকে হাজারো নারী পুরুষের সমাগম ঘটেছে।

ভিক্ষুদের পরিধেয় বস্ত্রকে বলা হয় চীবর। একমাত্র পার্বত্য এলাকার বিভিন্ন স্থানে রাজবন বিহারের শাখা বিহার গুলোতে  বিশাখা প্রবর্তিত নিয়মে ২৪ ঘন্টার মধ্যে এ চীবর তৈরী করে ভিক্ষু সংঘকে দান করা হয়ে থাকে। প্রচলিত এ নিয়মে জুমের উৎপাদিত তুলা থেকে চরকায় সুতা কেটে তা রং করে আগুনে শুকিয়ে পরে বেইনে কাপড় বুনে সেই কাপড় সেলাই করে চীবর তৈরী করা হয় এবং তা ভিক্ষু সংঘকে দান করা হয় ।

শুক্রবার দুপুরে ভিক্ষু সংঘকে চীবর দান শেষে ধর্মীয় দেশনার মাধ্যমে কঠিন চীবর দানোৎসব শেষ হবে। ধনপাতা বন বিহারে অধ্যক্ষ বনভন্তের শীর্ষ প্রজ্ঞাবোধি থেরো উপাসক উপাসিকাদের উদ্দেশ্যে ধর্মীয় দেশনা দেবেন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

Print Friendly