পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয় হামলা ও গাড়ী ভাংচুরের জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা করবে জেলা পরিষদ

স্টাফ রিপোর্টার হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম
শুক্রবার রাঙামাটি শহরে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় ঐক্যজোটের সমাবেশে সংঘর্ষের ঘটনার পর রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয়ে হামলা ও গাড়ী ভাংচুরের জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা করবে জেলা পরিষদ।

আজ শুক্রবার(২৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা এ কথা জানান।

পরিষদ কার্যালয়ে হামলা ও গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা পূর্ব পরিকল্পিত উল্লেখ করে পরিষদ চেয়ারম্যান দাবী করেন বলেন এ ঘটনায় বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের ক্যাডারা  জড়িত। পার্বত্য শান্তি চুক্তির কারেণ এই পার্বত্য জেলা পরিষদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে । কিন্তু বিএনপি-জামায়াত পার্বত্য শান্তি চুক্তিকে মেনে নেয়নি। এ কারেণ তারা বিভিন্নভাবে এ প্রতিষ্ঠানকে ক্ষতিগ্রস্থ করার চিন্তা করে। তাই সমাবেশের নাম দিয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এ হামলা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন এ হামলায় জেলা পরিষদের ৫টি গাড়ী ক্ষতিসহ পরিষদের ১৪/১৫ লাখ টাকা ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে।

M2U08849

পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, পরিষদের সিসিটিভির ক্যামরার ধারন করা ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের সনাক্ত করে দুইশ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে। তিনি এ হামলা ঘটনাটি ন্যাক্কারজনক উল্লেখ করে তিনি ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং দোষীদের সনাক্ত করে অবিলম্বে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকালে বিএনপিসহ ১৮ দলীয় ঐক্যজোট জেলা প্রশাসন চত্বরে সমাবেশ করার সময় ঢিল ছোড়াকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায়ে জেলা পরিষদ কার্যালয়ে হামলা ও গাড়ী ভাঙচুর করা হয়। এতে পরিষদের ৫টি গাড়ী ও গ্লাস ভেঙ্গে দেয় হামলাকারীরা।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

 

 

 

Print Friendly