পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদে গ্রেনেড হামলার ঘটনায় পুলিশ সুশীল চাকমা নামের একজনকে আটক করেছে

স্টাফ রিপোর্টার, হিলবিডিটোয়েনিটফোর ডটকম

h11

পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের  গ্রেনেড হামলার ঘটনায় পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার বিকালে শহরের রিজার্ভ বাজার এলাকার পাহাড়িকা বোডির্ং থেকে সুশীল চাকমা(২৩) নামের এক যুবককে আটক করেছে। তার বাবার নাম বাসু লাল চাকমা, তার বাড়ী নানিয়ারচরের ঘিলাছড়ি ইউনিয়নের মাইচছড়ি এলাকায়।

সোমবার বিকালে সাড়ে ৩টার দিকে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয় সন্মেলন কক্ষে আটক ব্যক্তি সুশীল চাকমাকে নিয়ে এক প্রেস ব্রিফিং করা হয়। প্রেস ব্রিফিং-এ কিভাব আটক করা হয় সেই ব্রিফিং দেন পুলিশ সুপার আমেনা বেগম। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ) হাবিবুর রহমান হাবিবসহ পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

rrr

প্রেস ব্রিফিং-এ পুলিশ সুপার জানান, ঘটনার ধরন এবং রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সিসিটিভি ক্যামরায় পরিক্ষা-নীরিক্ষা করে এবং গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের রিজার্ভ বাজারের পাহাড়িকা হোটেল থেকে সুশীল চাকমাকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। আটকের পর সুশীল জানায় একটি আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকার চুক্তি ভিত্তিতে সে এ কাজ করতে রাজি হয়। এর আগে তাকে ৫হাজার টাকা অগ্রীম টাকাও দেয়া বলে সে পুলিশকে জানায়।

pic1

অপরদিকে,পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার বিভাগের সহ-সম্পাদক সজীব চাকমা আঞ্চলিক পরিষদ কার্যালয়ে গ্রেনেড হামলা ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন চুক্তি বিরোধী ইউপিডিএফ এতদিন সন্ত্রাসী কার্যকলাপসহ জনসংহতি সমিতির নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালিয়ে আসছে তা এ ঘটনায় আটক ব্যক্তির স্বীকারোক্তির মধ্য দিয়ে প্রমানিত হয়েছে। তাই অবিলম্বে ঘটনার সাথে জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তিসহ ইউপিডিএফের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বন্ধের যথাযথ পদক্ষেপের জন্য তিনি সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অন্যদিকে,ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক(ইউপিডিএফ) মুখপাত্র ও গনতান্ত্রিক যুব ফোরামের সভাপতি মাইকেল চাকমা আটক ব্যক্তি জনসংহতি সমিতির সমর্থক এবং সরকার ও সন্তু লারমার সাজানো নাটক দাবি করে বলেছেন, আটক সুশীল ইউপিডিএফের কোন দিনই কর্মী বা সমর্থক ছিল না। বরং জনসংহতি সমিতির সমর্থক ছিল। সন্তু লারমা তার নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে সেনাবাহিনী ও পুলিশের অধিকতর ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য একটি সাজানো জর্জ মিয়ার নাটক মঞ্চায়িত করেছেন। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করা হলে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। তবে অদৌ সুষ্ঠু তদন্ত হবে কিনা তিনি আশংকা প্রকাশ করেন।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly