পানছড়ি ও দীঘিনালায় নেতা-কর্মী গ্রেফতারের প্রতিবাদে চট্টগ্রামে পিসিপি-যুব ফোরামের বিক্ষোভ

ডেস্ক রিপোর্ট,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

ctg protest, 20.10.2014 (1)

খাগড়াছড়ির পানছড়ি ও দীঘিনালায় পিসিপি-যুব ফোরামের নেতা-কর্মী ও গৃহবধুসহ ৪ জনকে অন্যায়ভাবে আটকের প্রতিবাদে গনতান্ত্রিক যুব ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) সোমবার বন্দর নগরী চট্টগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রা মহানগর শাখা সাধারণ সম্পাদক রসকিট চাকমার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় বলা হয়, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সভাপতি জিকো মারমা। বক্তব্য দেন পিসিপির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক অংকন চাকমা ও পিসিপির চট্টগ্রাম মহানগর শাখা সভাপতি সুকৃতি চাকমা প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পিসিপির চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক রসকিট চাকমা। এর আগে একটি বিক্ষোভ-মিছিল শহীদ মিনার সামনে থেকে শুরু হয়ে চেরাগী পাহাড় মোড় হয়ে ঘুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করা হয়। সমাবেশে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, পানছড়িতে পুলিশের অস্ত্র খোয়া যাওয়ার সাজানো নাটক বানিয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমন করার জন্য পুলিশ ও সেনাবাহিনী অন্যায়ভাবে নেতা-কর্মীদের ধরপাকড় চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের ধরপাকড়ের হাত থেকে সাধারণ লোকজন এবং নারীরাও রেহাই পাচ্ছে না। সপ্তাহ ধরে চলা সেনা-পুলিশের যৌথ অপারেশনের কারণে এলাকার লোকজনকে চরম আতঙ্কের মধ্যে দিনযাপন করতে হচ্ছে।

বক্তারা অবিলম্বে পিসিপির নেতা জহেল চাকমা, গণমিত্র চাকমা এবং গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের সুসময় চাকমা সহ আটককৃত সকলের নিঃশর্ত মুক্তি, ধরপাকড়-হয়রানি, গ্রামে গ্রামে সেনা তল্লাশি ও অভিযান বন্ধের দাবি জানান।

সমাবেশ থেকে বক্তারা পানছড়িতে গত ১৬ অক্টোবর সেটলার বাঙালি কর্তৃক ৪বছরের পাহাড়ি শিশু ধর্ষণকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং কাউখালীতে ১৫ অক্টেবর যুবলীগ নেতা কর্তৃক গৃহবধু ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানান।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly