জনসংখ্যা অনুপাতে জেলা পরিষদের বিল সংশোধনের দাবি দাবি বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের

ডেস্ক রিপোর্ট,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

জনসংখ্যার অনুপাতে বৈষম্যহীন ও গ্রহণযোগ্যতা পার্বত্য জেলা পরিষদ বিলসমূহ সংশোধনের আহবান জানিয়েছে বাঙালী ভিত্তিক সংগঠন পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ।

বৃহস্পতিবার সংগঠনের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি সাহাজল ইসলাম সজল ও সাধারন সম্পাদক এস.এম মাসুম রানার যৌথ স্বাক্ষরিত প্রেস বার্তায় জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, সোমবার পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি কর্তৃক সুপারিশকৃত তিন পার্বত্য জেলা পরিষদের  পুনর্গঠন বিলসমূহ বৈষম্যমূলক, এক তরফা ও সংশোধনী বিল সমূহ জাতীয় সংসদে পাশ করা হলে জেলা পরিষদের পাহাড়ীদের একক আধিপত্য তৈরী হবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয় খাগড়াছড়ি জেলায় পাহাড়ী শতকরা ৫২শতাংশ এবং শতকরা ৪৮ শতাংশ বাঙ্গালী জনগোষ্ঠী রয়েছে। চাকমা, মারমা ও ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের ৯জন, এবং ১জন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির মনোনীত মহিলা সদস্য ও চেয়ারম্যানসহ মোট ১১জনই উপজাতি। অপরদিকে, বাঙ্গালী সদস্য ও মহিলা সদস্যসহ ৪জন প্রস্তাব করা হয়েছে। বিবৃতিতে অবিলম্বে এ ধরনের বৈষম্যমূলক বিল প্রত্যাহার পূর্বক নতুনভাবে সংশোধনী এনে জনসংখ্যার অনুপাতে খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদে ৭জন সদস্য রাখার দাবি করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে এসব দাবী বাস্তবায়নে শনিবার সকাল ১১টায় জেলা শহরের শাপলা চত্বরে বৃহত্তর মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হবে। সরকার এসব দাবী বাস্তবায়নের  না নিলে পরবর্তীতে সড়ক অবরোধ, হরতাল সহ কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়ার হুশিয়ারী দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৭ নভেম্বর ‘‘রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ (সংশোধন) বিল-২০১৪ ‘‘বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ (সংশোধন) বিল-২০১৪’’ ও ‘‘খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ (সংশোধন) বিল-২০১৪’’ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির পক্ষ থেকে বিল পাশের জন্য জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly