ঘাগড়া কিন্ডার গার্টেন স্কুলের কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

1

রাঙামাটি ঘাগড়া কিন্ডার গার্টেন স্কুলের নতুন ভবন উদ্ধোধন ও বিদ্যালয়ের কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশ শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঘাগড়া কিন্ডার গার্টেন স্কুলে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পাার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি নব কুমার তংচঙ্গ্যার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন পরিষদ সদস্য অংসুইপ্রু চৌধুরী, ৩নং ঘাগড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থুইমং মারমা, শফি মেম্বার, বিশিষ্ট সমাজ উন্নয়ন কর্মী বাবুশে মারমা, শান্তি মনি চাকমা, সজিব দত্ত  প্রমূখ। অভিভাবকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সুকা চাকমা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য কামাল উদ্দীন আহম্মেদ। অনুষ্ঠান শুরুর আগে পরিষদ চেয়ারম্যান দশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত বিদ্যালয়ের নতুন ভবন উদ্ধোধন করেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পরিষদ চেয়ারম্যান বিদ্যালয়ের ২০১৩ সালের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে সার্টিফিকেট নগদ টাকা, জ্যামিতি বক্স, কলম ও উপহার সামগ্রী বিতরণ এবং নাচ ও গান পরিবেশনকারী শিক্ষার্থীদের তাৎক্ষনিক দশ হাজার টাকা প্রদান করেন।

2

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে এমন একটি প্রতিষ্ঠান যেখানে নেই কোন ধর্ম-বর্ণ, নেই কোন জাতি গোষ্ঠির ভেদাভেদ। শিক্ষার পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি মনোভাব রেখে প্রকৃত মানুষ হিসেবে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে ও এ জাতিকে একটি উন্নত জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে  প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এরই অংশ হিসেবে পার্বত্য জেলা পরিষদ হতে দশ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এ বিদ্যালয়টি নির্মান করা হয়েছে। আর এর পেছনে সব চাইতে বড় অবদান হচ্ছে এ এলাকার শিক্ষানুরাগীরা। তাদের এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি করার পেছনে যে উদ্দীপনা দেখিয়েছে তা প্রশনীয়।  জেলার শিক্ষা ব্যাবস্থাকে আমুল পরিবর্তন ও উন্নয়নের জন্য জেলা পরিষদ সবসময় পাশে ছিল থাকবে বলে তিনি আশ্বাস দেন।

তিনি বলেন, শিশুদের আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। নতুন প্রজন্মের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ এদের মধ্য থেকেই উঠে আসবে আগামী দিনের দেশ পরিচালনাকারী।

তিনি এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির জন্য আগামীতে পাঁকাভবন ও ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষাদানের জন্য কম্পিউটার সেট প্রদানের আশ্বাস দেন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly