কাউখালীর বগাপাড়ার চন্দ্রবংশ শিশু সদনে কঠিন চীবর দানোৎসব সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার, হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম

Picture 12-10-14-01

রাঙামাটি কাউখালী উপজেলার বগাপাড়া চন্দ্রবংশ শিশু সদনে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় ও উৎসব মুখর পরিবেশে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

চন্দ্রবংশ শিশু সদন প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত কঠিন চীবর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা। কাপ্তাই চিৎমরম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত পামোক্ষা মহাথেরর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য অংসুইপ্রু চৌধুরী, কাউখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস, এম চৌধুরী, কাউখালী উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস- চেয়ারম্যান এ্যানি চাকমা (কৃপা), বিশিষ্ট সমাজ সেবক হৃদয় চাকমা ও নন্দলাল চাকমা।

অনুষ্ঠানে ধর্ম দেশনা দেন ইছামতি ধাতুচৈত্য বিহার কমপ্লেক্সের অধ্যক্ষ ও চন্দ্রবংশ শিশু সদনের সভাপতি ভদন্ত সুমঙ্গল মহাথের। অনুষ্ঠানে বিহার পরিচালনা কমিটির সদস্য, জনপ্রতিনিধি, দায়ক দায়িকা ও পূর্ণাথীরা উপস্থিত ছিলেন।

Picture 12-10-14-03

এর আগে চন্দ্রবংশ শিশু সদনে তথাগত বুদ্ধ বিহারের চেয়ারম্যান ও কাপ্তাই চিৎমরম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত পামোক্ষা মহাথেরর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করনে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা বলেন, ধর্ম যার যার, উৎসব ও রাষ্ট্র সবার। সকল ধর্মের সম্মিলিত চেষ্টা ছাড়া এ রাষ্ট্রের উন্নয়ন ঘটানো কখনও সম্ভব নয়। তাই এ সমাজ  ও দেশের উন্নয়নে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার একটি অসাম্প্রদায়িক সরকার। তাই সকল ধর্মের মানুষ যাতে নির্ভয়ে নির্বিঘেœ যার যার ধর্ম পালন করতে পারে সে জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সকল ধর্মের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ ও সংষ্কার করে দিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে এই শিশু সদনটির উন্নয়ন এর কাজ জেলা পরিষদ হাতে নিয়েছে এবং তা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হবে।

তিনি আগত পূর্ণার্থীদের উদ্দ্যেশ্যে বলেন, বছরে যে সমস্ত দান করা হয় তার চাইতে প্রধান দান হচ্ছে  এই কঠিন চিবর দান। এই দানের মাধ্যমে সঞ্চিত পূণ্যরাশি অর্জিত করে সুন্দর মনমানসিকতা নিয়ে সবাইকে অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে এগিয়ে আসতে হবে।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly