কাউখালীতে ভদন্ত উ বিনয়াচার পঞ্ঞা ভিক্ষুর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার,হিলবিডিটোয়েন্টিফোর ডটকম 

Rangamati Pic-30-11-13-0.1_DMEABS

আজ শনিবার(৩০ নভেম্বর) রাঙামাটি কাউখালীর সোনাইছড়ি সর্ব্ব মঙ্গল বুদ্ধ ধাতু জাদী বিহারের উপাধ্যক্ষ ও বেনুবন বৌদ্ধ বিহারের প্রাক্তন বিহার অধ্যক্ষ বিদর্শণ সাধক ভদন্ত উ বিনয়াচার পঞ্ঞা ভিক্ষুর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

কাউখালীর সোনাইছড়ি সর্ব্ব মঙ্গল বুদ্ধ ধাতু জাদী বিহার বিহার প্রাঙ্গনে আয়োজিত অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা। অনুষ্ঠানে কাউখালী ইছামতি দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের আঞ্চলিক সংঘনায়ক ভদন্ত উ শাসনান্দ মহাথের-এর সভাপতিত্বে প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে ধর্ম দেশনা দেন বোমাং রাজগুরু ও দি ওয়ান বুদ্ধ শাসন সেবক সংঘের প্রতিষ্ঠাতা ভদন্ত উ প্রঞাঞা জোত মহাথের। স্বাগত বক্তব্য দেন কাউখালী উপজেলার বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অশোক কুমার চাকমা ও ভদন্ত উ বিনয়াচার পঞ্ঞা ভিক্ষু সংক্ষিপ্ত জীবনি পাঠ করেন অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উদযাপন কমিটির সহ-সভাপতি সুমোধু বড়ুয়া।

এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক অংসুইপ্রু চৌধুরী, কাউখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংচাপ্রু মারমা, ঘাগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থুইমং মারমা, ফটিকছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম চৌধুরী, ১নং বেতবুনিয়া মডেল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শামসুদ্দোহা চৌধুরী, পারমী বৌদ্ধ বিহারের সাধারণ সম্পাদক নন্দ চাকমা প্রমুখ। ধর্ম আলোচনা শেষে ধুমবাজির মধ্য দিয়ে বিদর্শন সাধক ভদন্ত উ বিনয়াচার পঞ্ঞা ভিক্ষুর শেষ অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার ভক্ত ও পূনার্থী অনুষ্ঠানে শরীক হন। পরে চেয়ারম্যান কাউখালী উপজেলার বেতবুনিয়া সোনাইছড়ি তাত প্রশিক্ষন কেন্দ্রের উন্নয়নের জন্য সমিতির প্রধানদের হাতে দুই লাখ টাকার চেক প্রদান করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মৈত্রী, প্রার্থনা, অহিংসা ও দানশীলের মাধ্যমে পূর্ণ্যরাশি সঞ্চয় করে দেশের সকল জাতির কল্যাণে সকল সম্প্রদায়কে এগিয়ে আহ্বান জানান। তিনি বলেন বর্তমান সরকার একটি অসাম্প্রদায়িক সরকার তাই সকল ধর্মের কল্যানে মসজিদ, মন্দির, বিহার, গীর্জাসহ সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ ও সংষ্কার ও বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার চাই এদেশের সকল ধর্মের মানুষ শান্তিতে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে। তিনি বর্তমান সরকারের এ অসাম্প্রদাদিক উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে কাউখালীবাসী তথা বাংলাদেশের সকল সম্প্রদায়কে পাশে থাকার আহ্বান জানান।
–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/এনএ.

Print Friendly