অবিসংবাদিত নেতা এমএন লারমার ৭৪ তম জন্ম বার্ষিকী পালিত

 স্টাফ রিপোর্টার, হিলবিডি টোয়েন্টিফোর ডটকম

Hbd24pic-3পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক সাংসদ মানবেন্দ্র নারায়ন লারমা(এমএন লারমা) ৭৪ তম জন্মদিন উপলক্ষে ১৫ সেপ্টেম্বর রাঙামাটিতে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  আয়োজন করা হয়েছে। সভায় বক্তারা এমএন লারমা শুধু আদিবাসীদের অধিকারের জন্য লড়াই সংগ্রাম করেননি সারাদেশের মেহনতি মানুষের  জন্য অধিকারের আদায়ের সংগ্রাম করে গেছেন। বক্তারা এমএন লারমার পার্বত্য চট্টগামকে নিয়ে যে স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই স্বপ্নের পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি অবিলম্বে যথাযথ বাস্তবায়নের দাবি জানান।  পৌর মিলনায়তনে এমএন লারমা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন ও গিরিসুর শিল্পী গোষ্ঠীর যৌথ উদ্যোগে আােয়জিত এমএন লারমা জীবন ও চিন্তা, বর্তমান প্রাসঙ্গিকতা র্শীষক আলোচনা সভায়  প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক হোসাইন কবির। এমএন লারমা মোমোরিয়েল ফাউন্ডেশনের সভাপতি বিজয় কেতন চাকমার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সহ-সভাপতি উষাতন তালুকদার,পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য মাধবিলতা চাকমা, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের চট্টগ্রাম অঞ্চলের সাংগঠনিক সম্পাদক তাপস হোড়, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক শক্তিপদ ত্রিপুরা, বিশিষ্ট চিকিৎসক কনিষ্ক চাকমা। বক্তব্যে দেন জনসংহতি সমিতির তথ্য ও প্রচার সহ-সম্পাদক সজীব চাকমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ত্রিজিনাদ চাকমা। এর আগে অনুষ্ঠান শুরুতে এমএন লারমার স্মৃতির উদ্দেশ্য দাঁিড়য়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। আলোচনা সভা শেষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের পুরস্কার  ও গিরিসুর শিল্পী গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  পরিবেশনা করা হয়।

উল্লেখ্য ১৯৩৯ সালে এমএন লারমা রাঙামাটির নানিয়াচর উপজেলার বুড়িঘাট ইউনিয়নে মহাপুরুম এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮৬ সালে ১০ নভেম্বর বিভেদপন্থীদের গুলিতে শহীদ হন।

–হিলবিডি২৪/সম্পাদনা/সিআর.

Print Friendly